গীতাঞ্জলি/১২

উইকিসংকলন থেকে
গীতাঞ্জলি ১২ লিখেছেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
অমল ধবল পালে লেগেছে

১৩[সম্পাদনা]

অমল ধবল পালে লেগেছে মন্দ মধুর হাওয়া --
  দেখি নাই কভু দেখি নাই এমন তরণী বাওয়া ॥
    কোন্‌ সাগরের পার হতে আনে কোন্‌ সুদুরের ধন --
          ভেসে যেতে চায় মন,
    ফেলে যেতে চায় এই কিনারায় সব চাওয়া সব পাওয়া ॥

পিছনে ঝরিছে ঝরো ঝরো জল, গুরু গুরু দেয়া ডাকে,
  মুখে এসে পড়ে অরুণকিরণ ছিন্ন মেঘের ফাঁকে ।
    ওগো কাণ্ডারী, কে গো তুমি, কার হাসিকান্নার ধন
         ভেবে মরে মোর মন --
    কোন সুরে আজ বাঁধিব যন্ত্র, কী মন্ত্র হবে গাওয়া ॥

রচনা: শান্তিনিকেতন, ৩ ভাদ্র ১৩১৫ (১৯ অগস্ট ১৯০৮)
গীতবিতান, বিশ্বভারতী ১৩৮০ সং পৃ ৪৮৩ থেকে সংগৃহীত ।

পাঠান্তর:
গীতাঞ্জলিতে (রবীন্দ্র রচনাবলী, বিশ্বভারতী ১৩৮৯, খণ্ড ১১, পৃ ১৩):
- পঙ্‌ক্তি ১: ছিল: "লেগেছে অমল ধবল পালে / মন্দ মধুর হাওয়া"
- পঙ্‌ক্তি ৭: "ঝরো ঝরো" ছিল: "ঝর ঝর"
পঙ্‌ক্তিবিন্যাস এবং যতিচিহ্নেও তারতম্য আছে।