অনুবাদ-চর্চ্চা/৯৩

উইকিসংকলন থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান


তিন জন কয়েদীকে তাহাদের নিজ নিজ কুঠরি হইতে অসর্তকতাবশত পালাইয়া যাইতে দিয়াছে বলিয়া সেন্‌ট্রাল জেলের একজন সর্দ্দার ও চৌকিদারের নামে যে অভিযোগ আসিয়াছিল, আলিপুরের ডেপুটি ম্যাজিষ্ট্রেট তাহার বিচার শেষ করিয়াছেন। একটি দড়িতে ভাঙা কাচ আঠা দিয়া জুড়িয়া তাহাদের কুঠরির লোহার গরাদে কাটিয়া এই তিন জন কয়েদী অত্যন্ত চতুরতার সহিত পালাইতে পারিয়াছে। তাহার পরে যখন চৌকিদার দূরে গেল, তখন তাহার দৃষ্টি এড়াইয়া ইহারা ইলেক্‌ট্রিক্‌ তার ধরিয়া নীচে নামিয়া এবং সীমানার প্রাচীরের উপরে চড়িয়া পালাইয়া গেল। জেলের সুপারিন্টেণ্ডেন্ট্‌ প্রকাশ করেন যে, অভিযুক্তেরা সে সময়ে শাসনলাঘবযোগ্য অবস্থায় কাজ করিতেছিল, যেহেতু কর্মচারীদের মধ্যে ইনফ্লুয়েঞ্জা সংক্রামক হওয়াতে জেল-ব্যবস্থা বিশৃলঙ্খলতায় উপনীত হইয়াছিল।