আজাদী সৈনিকের ডায়েরী/কর্ণেল সেহ্‌গলের দৈবক্রমে প্রাণরক্ষা

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন

৩০শে মার্চ ১৯৪৫; লেগ্যি

 আমরা লেগ্যির নিকট আছি। কর্ণেল সেহগল আজ আসিলেন।

 কর্ণেল সেহগলের নিকট হইতে শুনিলাম যে তিনি যখন এখানে মোটারে আসিতেছিলেন, তখন তাঁহার গাড়ীর উপর ২৫।৩০ গজ দুর হইতে ভীষণ গুলি বর্ষণ হয়। তাঁহার ধারণা ছিল যে সেখানে কোন বৃটিশ সৈন্য ছিল না। তাঁহারা গাড়ী হইতে নামিয়া উচ্চৈঃস্বরে বলিলেন—‘আমরা আজাদ হিন্দ ফৌজের লোক; গুলি থামাও।’

 জাপানী ভাষায় উত্তর আসিল—‘আমরা হিকারী কিকান্ দল। শত্রু কাছেই। তোমরা চলিয়া যাও।’

 তাহারা উচ্চে লক্ষ্য করিয়া গুলি ছুঁড়িতে লাগিল। সেই অবসরে আমরা চলিয়া আসিলাম। একটি গোলা আমাদের মোটারে লাগিলে আমরা কয় জনে উড়িয়া যাইতাম।’

 ১নং ব্যাটেলিয়নের একটি দল ঐ স্থানে গিয়াছিল। তাহারা দেখে মোটার ও লরির মধ্যে কতক গুলি শত্রু সৈন্য বসিয়া রহিয়াছে। আমাদের সৈন্যেরা তাহাদের উপর গুলি বর্ষণ আরম্ভ করিতেই তাহারা সব কিছু ফেলিয়া যে যেখানে পারিল পলায়ন করে। মোটার ও গাড়ীগুলি আমরা দখল করিয়াছি। কর্ণেল সেহগলের মোটারখানিও তাহার মধ্যে ছিল। তাঁহার টুপিটিও গাড়ীর মধ্যেই পাওয়া গেল।