আরোগ্য (রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর)

উইকিসংকলন থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
 

আরোগ্য

 

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

 

Logo of Visva Bharati.jpg

 

বিশ্বভারতী গ্রন্থালয়

২ বঙ্কিম চাটুজ্যে স্ট্রীট, কলিকাতা



প্রকাশক শ্ৰীপুলিনবিহারী সেন

বিশ্বভারতী, ৬৷৩ দ্বারকানাথ ঠাকুর গলি, কলিকাতা

 

প্রথম প্রকাশ ফাল্গুন, ১৩৪৭

পুনর্মুদ্রণ  আশ্বিন, ১৩৫০

 

মূল্য এক টাকা

 

মুদ্রাকর শ্ৰীগঙ্গানারায়ণ ভট্টাচার্য

তাপসী প্রেস, ৩০ কর্নওআলিস স্ট্রীট, কলিকাতা

সূচী
উৎসর্গ বহু লোক এসেছিল জীবনের প্রথম প্রভাতে
এ দ্যুলোক মধুময়, মধুময় পৃথিবীর ধূলি
পরম সুন্দর
নির্জন রোগীর ঘর
ঘণ্টা বাজে দূরে
মুক্ত বাতায়নপ্রান্তে জনশূন্য ঘরে
অতি দূরে আকাশের সুকুমার পাণ্ডুর নীলিমা
হিংস্র রাত্রি আসে চুপে চুপে
একা ব'সে সংসারের প্রান্ত-জানালায়
বিরাট সৃষ্টির ক্ষেত্রে
১০ অলস সময় ধারা বেয়ে
১১ পলাশ আনন্দমূর্তি জীবনের ফাল্গুনদিনের
১২ দ্বার খোলা ছিল মনে, অসতর্কে সেথা অকস্মাৎ
১৩ ভালোবাসা এসেছিল একদিন তরুণ বয়সে
১৪ প্রত্যহ প্রভাতকালে ভক্ত এ কুকুর
১৫ খ্যাতি নিন্দা পার হয়ে জীবনের এসেছি প্রদোষে
১৬ দিন পরে যায় দিন স্তব্ধ বসে থাকি
১৭ যখন এ দেহ হতে রোগে ও জরায়
১৮ ফসল কাটা হলে সারা মাঠ হয়ে যায় ফাঁক
১৯ দিদিমণি
২০ বিশুদাদা
২১ চিরদিন আছি আমি অকেজোর দলে
২২ নগাধিরাজের দূর নেবু-নিকুঞ্জের
২৩ নারী তুমি ধন্যা
২৪ অলস শয্যার পাশে জীবন মন্থরগতি চলে
২৫ বিরাট মানবচিত্তে
২৬ এ-কথা সে-কথা মনে আসে
২৭ বাক্যের যে ছন্দোজাল শিখেছি গাঁথিতে
২৮ মিলের চুমকি গাঁথি ছন্দের পাড়ের মাঝে মাঝে
২৯ এ জীবনে সুন্দরের পেয়েছি মধুর আশীৰ্বাদ
৩০ ধীরে সন্ধ্যা আসে, একে একে গ্রন্থি যত যায় স্খলি
৩১ ক্ষণে ক্ষণে মনে হয় যাত্রার সময় বুঝি এল
৩২ অালোকের অন্তরে যে আনন্দের পরশন পাই
৩৩ এ আমির আবরণ সহজে স্খলিত হয়ে যাক

আরোগ্য

 

এই লেখাটি বর্তমানে পাবলিক ডোমেইনের আওতাভুক্ত কারণ এটির উৎসস্থল ভারত এবং ভারতীয় কপিরাইট আইন, ১৯৫৭ অনুসারে এর কপিরাইট মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়েছে। লেখকের মৃত্যুর ৬০ বছর পর (স্বনামে ও জীবদ্দশায় প্রকাশিত) বা প্রথম প্রকাশের ৬০ বছর পর (বেনামে বা ছদ্মনামে এবং মরণোত্তর প্রকাশিত) পঞ্জিকাবর্ষের সূচনা থেকে তাঁর সকল রচনার কপিরাইটের মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে যায়। অর্থাৎ ২০১৭ সালে, ১ জানুয়ারি ১৯৫৭ সালের পূর্বে প্রকাশিত (বা পূর্বে মৃত লেখকের) সকল রচনা পাবলিক ডোমেইনের আওতাভুক্ত হবে।