কথামালা (১৮৮৫)

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
১৪ ও ১৫, ৪৬ ও ৪৭, ৯৯ থেকে ১০৩ নং পাতা নেই
কথামালা

শ্রীঈশ্বরচন্দ্রবিদ্যাসাগর প্রণীত।


চতুশ্চত্বারিংশ সংস্করণ।

কলিকাতা
সংস্কৃত যন্ত্র।
সংবৎ ১৯৪১।
PUBLISHED BY THE SANSKRIT PRESS DEPOSITORY
NO. 148, BABANABI GHOSH'S STREET, JORASANKO.
1885.

সূচী

পৃষ্ঠা

       
১০
       
১২
       
১৩
       
১৪
       
১৬
       
১৭
       
১৮
       
১৯
২১
       
২৩
       
২৫
       
২৬
       
২৮
       
২৯
       
৩১
       
৩২
       
৩৩
       
৩৪
৩৬
       
৩৭
       
৩৭
৩৮
       
৪০
       
৪১
       
৪৪
       
৪৫
৪৭
       
৪৮
       
৪৯
       
৫০
       
৫১
       
৫২
৫৫
       
৫৬
       
৫৭
৫৮
       
৫৮
       
৫৯
       
৬১
       
৬২
৬৩
       
৬৭
       
৬৮
       
৬৯
       
৭১
       
৭২
       
৭২
       
৭৩
       
৭৫
       
৭৬
       
৭৮
       
৭৯
৮১
       
৮২
       
৮২
       
৮৪
       
৮৫
       
৮৭
       
৮৮
       
৮৯
       
৯০
৯১
       
৯২
       
৯৩
       
৯৪
       
৯৫
       
৯৬
       
৯৭
       
৯৯
       
১০০
       
১০১
       
১০১
       
১০৩

বিজ্ঞাপন



রাজা বিক্রমাদিত্যের পাঁচ ছয় শত বৎসর পূর্ব্বে, গ্রীসদেশে ঈসপ নামে এক পণ্ডিত ছিলেন। তিনি, কতকগুলি নীতিগর্ভ গল্পের রচনা করিয়া, আপন নাম চিরস্মরণীয় করিয়া গিয়াছেন। ঐ সকল গল্প ইঙ্গরেজি প্রভৃতি নানা য়ুরোপীয় ভাষায় অনুবাদিত হইয়াছে, এবং, য়ুরোপের সর্ব্ব প্রদেশেই, অদ্যাপি, আদর পূর্ব্বক, পঠিত হইয়া থাকে। গল্পগুলি অতি মনোহর; পাঠ করিলে, বিলক্ষণ কৌতুক জন্মে, এবং আনুষঙ্গিক সদুপদেশলাভ হয়। এই নিমিত্ত, শিক্ষাকর্মাধ্যক্ষ শ্রীযুক্ত উইলিয়ম গর্ডন ইয়ঙ্‌ মহোদয়ের অভিপ্রায় অনুসারে, আমি ঐ সকল গল্পের অনুবাদে প্রবৃত্ত হই। কিন্তু, এতদ্দেশীয় পাঠকবর্গের পক্ষে, সকল গল্পগুলি তাদৃশ মনোহর বোধ হইবেক না; এজন্য ৬৮টি মাত্র, আপাততঃ, অনুবাদিত ও প্রচারিত হইল। শ্রীযুক্ত রেবেরেণ্ড টামস জেম্‌স, ঈসপরচিত গল্পের ইঙ্গরেজি ভাষায় অনুবাদ করিয়া, যে পুস্তক প্রচারিত করিয়াছেন, অনুবাদিত গল্পগুলি সেই পুস্তক হইতে পরিগৃহীত হইয়াছে।

শ্রীঈশ্বরচন্দ্র শর্ম্মা

কলিকাতা। সংস্কৃত কালেজ।

৭ই ফাল্গুন। সংবৎ ১৯১২।
সপ্তত্রিংশ সংস্করণের বিজ্ঞাপন

এই সংস্করণে, অশ্ব ও অশ্বপাল, বৃদ্ধা নারী ও চিকিৎসক, কুক্কুরদষ্ট মনুষ্য, পথিকগণ ও বটবৃক্ষ, কুঠার ও জলদেবতা, দুঃখী বৃদ্ধ ও যম, এই ছয়টি গল্প নূতন অনুবাদিত ও সন্নিবেশিত হইয়াছে। এক্ষণে, সমুদয়ে গল্পের সংখ্যা ৭৪টি হইল। পুস্তকের আদ্যোপান্ত, সবিশেষ যত্ন সহকারে, সংশোধিত হইয়াছে।

শ্রীঈশ্বরচন্দ্র শর্ম্মা

 কলিকাতা।

১লা বৈশাখ। সংবৎ ১৯৩৯।

এই লেখাটি ১ জানুয়ারি ১৯২৮ সালের পূর্বে প্রকাশিত এবং বিশ্বব্যাপী পাবলিক ডোমেইনের অন্তর্ভুক্ত, কারণ উক্ত লেখকের মৃত্যুর পর কমপক্ষে ১০০ বছর অতিবাহিত হয়েছে অথবা লেখাটি ১০০ বছর আগে প্রকাশিত হয়েছে ।