গীতবিতান/জাতীয় সংগীত/ভারত রে, তোর কলঙ্কিত পরমাণুরাশি

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন


               ভারত রে, তোর কলঙ্কিত পরমাণুরাশি
         যত দিন সিন্ধু না ফেলিবে গ্রাসি তত দিন তুই কাঁদ্‌ রে ।
         এই হিমগিরি স্পর্শিয়া আকাশ প্রাচীন হিন্দুর কীর্তি-ইতিহাস
         যত দিন তোর শিয়রে দাঁড়ায়ে অশ্রুজলে তোর বক্ষ ভাসাইবে
                     তত দিন তুই কাঁদ্‌ রে ।।

         যে দিন তোমার গিয়াছে চলিয়া সে দিন তো আর আসিবে না ।
         যে রবি পশ্চিমে পড়েছে ঢলিয়া সে আর পুরবে উঠিবে না ।
         এমনি সকল নীচ হীনপ্রাণ জনমেছে তোর কলঙ্কী সন্তান
         একটি বিন্দু অশ্রুও কেহ তোমার তরে দেয় না ঢালি ।
      যে দিন তোমার তরে শোণিত ঢালিত সে দিন যখন গিয়াছে চলি
                     তখন, ভারত, কাঁদ্‌ রে ।।

         তবে বিধি কেন এত অলঙ্কারে রেখেছ সাজায়ে ভারতকায় ।
         ভারতের বনে পাখি গায় গান, স্বর্ণমেঘ-মাখা ভারতবিমান—
         হেথাকার লতা ফুলে ফুলে ভরা, স্বর্ণশস্যময়ী হেথাকার ধরা—
                     প্রফুল্ল তটিনী বহিয়ে যায় ।
         কেন লজ্জাহীনা অলঙ্কার পরি রোগশুষ্কমুখে হাসিরাশি ভরি
                     রূপের গরব করিস্‌ হায় ।
                 যে দিন গিয়াছে সে তো ফিরিবে না,
                     তবে, রে ভারত, কাঁদ্‌ রে ।।

         ভারত, তোর এ কলঙ্ক দেখিয়া শরমে মলিন মুখ লুকাইয়া
         আমরা যে কবি বিজনে কাঁদিব, বিজনে বিষাদে বীণা ঝঙ্কারিব,
                     তাতেও যখন স্বাধীনতা নাই
                            তখন, ভারত, কাঁদ্‌ রে ।।