নেতাজীর জীবনী ও বাণী

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
নেতাজীর জীবনী ও বাণী

নেতাজীর জীবনী ও বাণী

(আজাদ হিন্দ গভর্ণমেণ্ট ও ফৌজের সম্পূর্ণ ইতিহাস, আজাদ হিন্দ
ফৌজের বিচার, আগষ্ট আন্দোলন ও বাংলার হলদিঘাট—
মেদিনীপুরের কাহিনী সম্বলিত)

শ্রীনৃপেন্দ্রনাথ সিংহ এম. এস্‌-সি, বি-এল.

সােল এজেন্টস্‌ঃ
ওরিয়েন্ট বুক কোম্পানি
৯, শ্যামাচরণ দে ষ্ট্রীট, কলিকাতা।

দামঃ দুই টাকা

প্রকাশক:—

শ্রী প্রাণকৃষ্ণ গাঁতাইত

৩৪ বি, রামতনু বসু লেন

কলিকাতা

প্রথম সংস্করণ—১৩৫২ সাল

প্রিন্টার—বাসকলাল পান

গোবর্দ্ধন প্রেস

২০৯, কর্ণওয়ালিস্ ষ্ট্রীট, কলিকাতা

সূচীপত্র
বিষয় পৃষ্ঠা
১। প্রস্তাবনা
২। মাতা-পিতা
৩। বাল্যকাল
৪। কলেজ জীবন
৫। বিলাতে পাঠ্যাবস্থা
৬। ভারতে আগমন ১০
৭। জাতীয় কলেজের অধ্যক্ষ ১০
৮। যুবরাজ বয়কট ১১
৯। উত্তর-বঙ্গ প্লাবন ১২
১০। স্বরাজ্য দল ১২
১১। কর্পোরেশনের প্রধান কর্ম্মকর্ত্তা ১৩
১২। ৩ আইনের গ্রেপ্তার ১৩
১৩। মান্দালয়ে কারাবাস ১৪
১৪। বাংলার নেতা ১৫
১৫। নেহেরু কমিটি ১৬
১৬। সাইমন কমিশন বয়কট ১৬
১৭। ১৯২৮ সাল ১৬
১৮। কলিকাতা কংগ্রেস ১৭
১৯। জহরলালের দলত্যাগ ১৮
২০। বাংলার পুনর্নির্ব্বাচন ১৮
২১। কারাদণ্ড ১৯
২২। আরউইনের ঘোষণা ১৯
২৩। লাহোর কংগ্রেস ২০
২৪। বাংলায় বিরোধ ২১
২৫। তিনবার কারাদণ্ড ২২
২৬। গান্ধী আরউইন প্যাক্ট ২৩
২৭। প্রতিবাদ ২৪
২৮। হাজত বাস ২৪
২৯। ইউরোপ ভ্রমণ ২৫
৩০। পিতার মৃত্যু ২৬
৩১। ইউরোপ ভ্রমণ (দ্বিতীয় বার) ২৭
৩২। ভারতে আগমন ও গ্রেপ্তার ২৮
৩৩। স্বাস্থ্যোন্নতি ২৯
৩৪। হরিপুরা কংগ্রেস ৩০
৩৫। ত্রিপুরী কংগ্রেসের সভাপতি নির্ব্বাচন ৩২
৩৬। সভাপতি নির্ব্বাচনের পর ৩৩
৩৭। ত্রিপুরীতে অধিবেশন ৩৫
৩৮। ঐতিহাসিক পত্র ৩৯
৩৯। জীবনে আধ্যাত্মিক পরিবর্ত্তন ও অকস্মাৎ অন্তর্দ্ধান ৪২
৪০। সুভাষ চন্দ্রের জীবনের প্রধান ঘটনাবলী ৪৫
নেতাজীর অমরকীর্ত্তি
১। আজাদ হিন্দ গভর্ণমেণ্ট ও আজাদ হিন্দ ফৌজ ৪৮
২। ভারতীয়ের সভা ৪৮
৩। আজাদ হিন্দ সঙ্ঘ ও ফৌজ ৪৯
৪। জাপানের সহিত বিবাদ ৫০
৫। সুভাষ চন্দ্রের আগমন ও নীতি ঘোষণা ৫০
৬। অস্থায়ী স্বাধীন ভারত গভর্ণমেণ্ট ৫১
৭। সমাজ সেবা ৫৩
৮। ভারত আক্রমণ ও সেনা সংস্থান ৫৩
৯। বীরত্বের কাহিনী ৫৬
নারী বাহিনী
১০। সেবায় নারী ৫৮
১১। যুদ্ধে নারী ৫৯
স্বাধীনতার যুদ্ধে বীর অধিনায়কগণ
১। রাসবিহারী বসু ৬১
২। রাজা মহেন্দ্র প্রতাপ ৬২
৩। জগন্নাথ রাও ভোঁসলে ৬৪
৫। লেঃ কর্ণেল মিস লক্ষ্মী স্বামীনাথন ৬৫
৬। ক্যাপ্টেন শাহনওয়াজ ৬৬
৭। ক্যাপ্টেন পি, কে, সাইগল ৬৭
৮। গুরুরাম সিং ধীলন ৬৭
আজাদ হিন্দ ফৌজের বিচারালয়
১। বিচারক ও উকিল ৬৮
২। আসামী ৭০
৩। সরকারী অভিযোগ ৭০
৪। বিচারের ফল ৭১
আজাদ হিন্দ ফৌজের পরবর্ত্তী সংবাদ
১। I. N. A ৭২
২। আজাদ হিন্দ সঙ্ঘের ও গভর্ণমেণ্টের মধ্যে সম্পর্ক ৭২
৪। নেতাজীর জীবন নাশের চেষ্টা ৭৩
৫। ব্যাঙ্ক ও আয় ৭৪
৬। নেতাজীর প্রতি ভক্তি ৭৪
৭। নেতাজীকে সোনায় ওজন ৭৫
৮। জার্ম্মানীতে আজাদ হিন্দ ফৌজ গঠন ৭৫
আজাদ হিন্দ ফৌজের জন্য নেতাজীর বিভিন্ন ঘোষণা, নির্দ্দেশনামা ও বাণী
১। আজাদ হিন্দ গভর্ণমেণ্টের ঘোষণা ৭৭
২। দিল্লী চলো ৮১
৩। নির্দ্দেশনামা ৮২
৪। ঝান্সীর রাণী বাহিনীর উদ্বোধনে সুভাষ চন্দ্রের বক্তৃতা ৮৩
৫। নেতাজীর শেষ নির্দ্দেশ বাণী ৮৪
৬। আজাদ হিন্দ ফৌজের সমর সঙ্গীত ৮৫
৭। আজাদী বাহিনীর সঙ্কল্পবাণী ৮৬
৮। তিরক্তা ঝাণ্ডা ৮৭
নেতাজীর বাণী
[পত্রাবলীর মর্ম্মাংশ]
১। চরিত্র গঠন ও মানসিক উন্নতি ৮৮
২। অন্তরে শান্তি ও বন্দী জীবনের মূল্য ৯১
৩। জেল ও কয়েদী ৯৩
৪। দলাদলি ও বাংলার ভবিষ্যত ৯৪
৫। জীবনের লক্ষ্য ৯৬
৬। উত্তর-কলিকাতা অধিবাসীগণের নিকট আবেদন ৯৭
সুভাষচন্দ্রের বক্তৃতার সারমর্ম্ম
১। মাতৃজাতির প্রতি সম্মান ১০০
২। ছাত্রদিগের আদর্শ স্বাধীনতা ১০৩
৩। তরুণের কাজ সৃষ্টিকরা ১০৬
৪। তরুণের ধর্ম্ম ১০৬
৫। জীবনবাদ বা আদর্শ ১০৭
৬। বাঙ্গালীর বৈশিষ্ট্য ১০৭
৭। দেশের জন্য দুঃখ ভোগ ১০৮
৮। যুব আন্দোলনের উৎপত্তি ১০৯
৯। ব্যক্তিত্ব ও সমষ্টিগত সাধনা ১০৯
১০। আত্মশক্তির স্ফুরণ ১১১
১১। সঙ্কল্প ১১২
১২। যুব আন্দোলনের উদ্দেশ্য ১১২
১৩। অতিমানব ১১৩
১৪। আদর্শ চাই ১১৩
১৫। আদর্শ সমাজ ও রাষ্ট্র ১১৪
১৬। নূতন প্রোগ্রামের জন্য চিৎকার ১১৪
১৭। স্বাধীনতার অখণ্ড রূপ ১১৫
১৮। রক্তের সংমিশ্রন ১১৫
১৯। প্রেরণা শক্তি ১১৬
২০। বিদেশী মতবাদ ১১৭
২১। বাধা বিপত্তি ১১৮
২২। যুব আন্দোলনের সার্থকতা ১১৮
২৩। জনপ্রিয়তা ১১৯
২৪। কি চাই? ১২০
২৫। স্বাধীনতার আকাঙ্ক্ষা ১২১
২৬। সাম্য ১২১
২৭। পাশ্চাত্য সভ্যতার প্রভাব ১২১
২৮। আত্মহুতি ১২২
২৯। শ্রমিক ও কৃষক ১২২
৩০। শিক্ষিত সম্প্রদায় ১২৩
৩১। কেন্দ্রীয় যুব সমিতি ১২৪
৩২। আমাদের অভাব ১২৪
৩৩। পল্লী সংস্কার ১২৫
৩৪। রাজনীতিতে বিবাদ ১২৫
৩৫। কাজের সুযোগ ১২৬
৩৬। তরুণ সমাজ ১২৬
৩৭। Spirit of Adventure ১২৬
৩৮। তরুণের আদর্শ ১২৭
৩৯। আত্মবলিদান ১২৭
৪০। স্বাধীন ভারত ১২৮
৪১। নূতন সমাজ ১২৯
৪২। অন্তরের জাগরণ ১২৯
৪৩। ধারণার পরিবর্ত্তন ১২৯
৪৪। নেতাজীর শেষ বাণী ১৩০
৪৫। নেতাজীর জন্মদিবসে শাহ নওয়াজের বাণী ১৩০
নেতাজীর বাণী
বার্লিন ৫ই মে ১৩১
প্রথম আজাদি ঘোষণা [১৯৪০ সাল, ৫৯ জুলাই] ১৩১
বিশ্বাস ঘাতকতার শাস্তি [১৯৪৫ সাল, ১৩ই মার্চ] ১৩৩
কেন আমি বাঙ্গালা ত্যাগ করিলাম [১৯৪৩ সাল, ৯ই জুলাই] ১৩৪
এই দাবী নিয়ে স্বাধীনতাদেবী আজ দ্বারে উপস্থিত ১৩৭
নেতাজীর স্বপ্ন ১৩৮
আজাদ হিন্দ ফৌজের দিন পঞ্জী ১৩৯
অন্তর্দ্ধানের গুপ্ত তথ্য ১৪১
ভারতে অন্তর্বিপ্লব ১৪২
ঐতিহাসিক আগষ্ট প্রস্তাব ১৪৩
বাঙ্গালার হলদীঘাট—মেদিনীপুর
(ক)। তমলুক ১৫০
(খ)। কাঁথী ১৫৬
(গ)। প্রলয়ঙ্কর বন্যা ও ঝঞ্ঝা ১৫৯

এই লেখাটি বর্তমানে পাবলিক ডোমেইনের আওতাভুক্ত বলে অনুমান করা হচ্ছে কারণ এটির উৎসস্থল ভারত এবং ভারতীয় কপিরাইট আইন, ১৯৫৭ অনুসারে এর প্রথম প্রকাশের ৬০ বছর পর পঞ্জিকাবর্ষের সূচনা থেকে কপিরাইটের মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে যায়। অর্থাৎ ২০২৩ সালে, ১ জানুয়ারি ১৯৬৩ সালের পূর্বে প্রকাশিত সকল রচনা পাবলিক ডোমেইনের আওতাভুক্ত হবে।

বিঃদ্রঃ এই লেখা/রচনা/বইয়ের লেখকের মৃত্যুসাল কোনও তথ্যসূত্র দ্বারা প্রতিষ্ঠিত নয়। ভবিষ্যতে কোনো তথ্যসূত্র দ্বারা লেখকের মৃত্যুসাল সংক্রান্ত তথ্য প্রকাশে এলে, এই লেখকের রচনার প্রকৃত কপিরাইট অবস্থা যাচাই করা সম্ভব হবে। নতুন তথ্য অনুসারে এই বইটির কপিরাইট অবস্থা ভবিষ্যতে বিচার করে সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।