পাতা:অক্ষয়কুমার বড়াল গ্রন্থাবলী.djvu/১৮৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ĝe অক্ষয়কুমার বড়াল-গ্রন্থাবলী একে ত এ মানব-জীবন, নদী-কুলে বেতলীর লতা ; সদাই আকুল পর-হাতে, ঢেউয়ে ঢেউয়ে সদা পর-কথা । সদা সে আনিত পর-স্মৃতি, পরের সে দূত । বুঝিতে, বুঝাতে ছটো কথা, কুসুম পলকে বৃস্ত-চু্যত । । আঁখি শুধু মেলিতে মেলিতে, তারক। যে মেঘেতে লুকায় । বসন্ত যে আসিতে আসিতে, অথি-পথে থমকি পলায় । অকাল-মরণ তবে,—সে ত পুণ্য-ফল জগত-ভিতর । আমরা ত দীর্ঘ-প্ৰাণ ল’য়ে, শূন্ত-পানে চেয়ে আছি, জুড়ি হুই কর । রবীন্দ্রনাথ কোটি কোটি বর্ষা-নিশি ঘুরেছে জগত, কত কোটি কোটি তার ঘেরে চারি ধার, জলিয়া—নিবিয়া গেছে, খদ্যোতের মত । পথিক পায় নি পথ, গন্তব্য তাহার । মেঘ-স্তরে-স্তরে আজ, মুদুর আকাশে, কনকের রেখা মত কি যেন ফুটিছে । বিহঙ্গের কল-কলে, কুসুমের বাসে, শুস্তিত সমীর যেন চমকি উঠিছে।