পাতা:অক্ষয়কুমার বড়াল গ্রন্থাবলী.djvu/২০০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অক্ষয়কুমার বড়াল-গ্ৰস্থাবলী বিহঙ্গম ডাকে যে প্রত্যুযে, ডাকে কি সে বৃথায়—বৃথায়? ফোটে না কি তাহার আলোক, সে ডাক কি বৃথা ভেসে যায়? জীবনের এই আধ-খানা, দরশ-পরশাতীত আশা— এ রহস্তে কোন অর্থ নাই? এ কি স্বধু ভাব-হীন ভাষা? এ কি সুধু ভাব-হীন ভাষা? এই যে কথার পিছে প্রাণান্ত পিপাসা। এই যে চাহনি কাছে, কি অশ্রু ফুটিয়া আছে কি শ্বাস নিশ্বাস পাছে, দিন-রাত যোঝে — এই যে স্বরের পরে, কত গান হাহা করে কত ছবি আছে প’ড়ে, খসড়ার ঘোজে। এ কি ভাব-হীন ভাষা, কেহ নাহি বোঝে? এই যে কল্পনা-শ্বাস, যেন শেফালির বাস, থেকে থেকে ধীর বায়ে উঠিছে শিহরি। এই যে আশার লত। কঁাপিতেছে পেয়ে ব্যথা, কুইয়। পড়িছে মাথা, প’ড়ে ফুল ঝরি। এই যে নীরব প্রেম, শারদ জোছনা যেন, আপন হৃদয়-ভারে আকুল আপনি। সুখের বঁাশরা দূরে— বাজিছে বেহাগ স্থরে, এই আছে, এই নাই, উছলিছে ধ্বনি। এই যে তুখের বায়, ফুলবন দিয়ে যায়, অথচ জানে না নিজে, কি দুখে বিভল। কিছু নয়—কিছু নয়, তবে এ সকল?