পাতা:অক্ষয়কুমার বড়াল গ্রন্থাবলী.djvu/৩০১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


এৰা ? পরিচয় । r ۰/ه اد BDDD DDDD DDD DDDBB DDBBD BBBS BB B BBBBBBB DDDDD মুখরিত হইয়া উঠিতেছে। কেবল তাঁহাই নহে। এই কবিতাগুলি যেন বিশ্বের সাৰ্ব্বজনীন দাম্পত্য-বিরহের সাধারণ শোক-চিত্রগুলিকেও একে একে ফুটাইৱা তুলিয়াছে। এগুলি কেবল কবিতা নহে, কেবল এক একটা ভাবের উচ্ছ্বাল নহে, যেন এক একটা উজ্জ্বল তৈলচিত্র –এক একটা জীবন্ত প্রত্যক্ষ দৃশ্বের মত চক্ষের উপর ভাসিয়া উঠে, এবং এক একটা অপূৰ্ব্ব কারুণ্য মূৰ্ত্তি-পরিগ্রহ করিয়া আমাদের চিত্তপট অধিকার করিয়া বসে। কবিতাগুলির প্রত্যেক অঙ্গপ্রত্যঙ্গ, প্রত্যেক বর্ণ-বৈচিত্র্য, প্রত্যেক ‘খুটনাটী’ আমাদের অতি পুরাতন-পরিচিত বস্তু। চক্ষে বাহা দেখিয়াছি, এই শক্কচিত্রে তাহাই প্রত্যক্ষ করিতেছি। প্রাণে যাহা ভুগিয়াছি, তাহাই এখানে পুনর্জীবিত হইয়া উঠিয়াছে –পড়িতে পড়িতে সেই পুরাতন বিষ্কৃত ভাবগুলি প্রাণের অস্তস্তলে সহসা নড়িয়া-চড়িয়া উঠে । কাব্য ও চিত্র, সঙ্গীত ও ভাস্কৰ্য্যাদি সৰ্ব্ববিধ ললিতকলার উৎকর্ষের একটী অতি প্রধান লক্ষণ এই যে,–কথায় বা স্বরে, প্রস্তরে বা চিত্রপটে রসবিশেষ যতটুকু ফুটে, তাহার ইতিমত্রে পাঠক, শ্রোতা বা দর্শকের মৰ্ম্মস্থলে, নিগুঢ় আন্তরিক অনুভূতিতে— তাহার শতগুণ অধিক ফুটাইয়া তুলে। এষার প্রত্যেক কবিতায় এই লক্ষণ স্বম্পষ্ট। কবি একটা দুইটী কথার ইঙ্গিতে এক একটী বিশাল রসরাজ্য পাঠকের মানস-চক্ষে খুলিয়া দিয়াছেন। এবার কবিতাগুলির দৃশু সাধারণ, এরং উপকরণ সামান্ত । কিন্তু এই কবিতাগুলির উপজীব্য যে কারুণ্য—তাহ অলোকসামান্ত । এই সামান্ত উপকরণ লইয়া অক্ষয়কুমার বে এমন সঙ্গীব, উজ্জল রসমূৰ্ত্তি গড়িয়াছেন, ইহাই তাহার আলোকসামান্ত কবি-প্রতিভার পরিচয় । এষায় বিশ্বসমস্ত। এবার আর একটী দিক্‌ আছে। গভীর শোক কেবল রসেরই স্বাক্ট করে না, জীবন-মরণের দুর্তেষ্ঠ সমস্তাও জাগাইয়া তুলে। ‘ইন্‌ মেমোরিয়মে টেনিসন এই দিক্‌টাই বেশী করিয়া ফুটাইবার চেষ্টা করিয়াছেন। জীবনের মৰ্ম্ম কি, মৃত্যুর অর্থ কি ; কেন এত আশার কুহক, নিরাশার কুলিশাঘাত ; কেন এত প্রেম, এত দুঃখ, এত নিফল আৰ্ত্তনাদ । এই সকল বিশ্বসমস্তার মীমাংসা সহজে হয় না বটে, কিন্তু শোকে সমস্তাগুলি আপনা হইতেই জাগিয়া উঠে। রসের ন্যায় তত্বের দিক্ দিয়াও শোক বিশ্বজনীনতা লাভ করে। অক্ষয়কুমারের এষায় পারলৌকিক বিশ্বাসের ষে অটল ভিত্তি পাওয়া বা, এমন কথা বলি না। ইন্‌ মেমোরিামেও ডাহা नाहे ; ডৰে নানা দিক দিয়া এ সমস্তাৱ আলোচনা আছে। আর, টেনিসন যেমন খৃষ্টীয় ধর্থের