পাতা:অক্ষয়কুমার বড়াল গ্রন্থাবলী.djvu/৫৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


                              
                            শ্রাবণে
                সারা দিন একখানি      জল-ভরা কালো মেঘ
                      রহিয়াছে ঢাকিয়া আকাশ;
                বসে জানালার পাশে,     সারা দিন আছি চেয়ে--
                       জীবনের আজি অবকাশ!
                গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি পড়ে,    তরুগুলি হেলে-দোলে,       
                       ফুলগুলি পড়িছে খসিয়া;
                 লতাদের মাথা গুলি      মাটিতে পড়েছে লুটি';
                       পাখীগুলি ভিজিছে বসিয়া।
                কোথা সাড়া-শব্দ নাই,     পথে লোক-জন নাই,
                       হেথা-হোথা দাঁড়ায়েছে জল;
                ভিজা ঘাসঝাড় হ'তে      লাফায় ফড়িঙ্গ কভু,
                       জলায় দাকিছে ভেকদল।  
                 চাতক,ঝাড়িয়া পাখা,     ডাকিয়া ফটিক-জল,
                        ছাড়ি' নীড়, উঠিছে আকাশে;
                কলম্ব-কেতকী-বাস        কাঁপিছে বাতাসে ধীরে;
                        গেছে ধরা ঢেকে' শ্যাম ঘাসে।
                দিঘীটী গিয়াছে ভরে',       সিঁড়ীটী গিয়াছে ডুবে',      
                       কাণায় কাণায় কাঁপে জল;
                বৃষ্টি-ভরে--বায়ু-ভরে        নুয়ে পড়ে বার বার
                       আধ-ফোতা কুমুদ কমল।
                তীরে নারিকেল মূলে         থল্-থল্ করে জল;
                       ডাহুক ডাহুকী কূলে ডাকে;
                সারি দিয়া মরালীরা         ভাসিছে তুলিয়া গ্রীবা,
                       লুকাইছে কভু দাম-ঝাঁকে।