পাতা:অক্ষয়-সুধা - অক্ষয়কুমার দত্ত.pdf/২৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

(॥৬• ) প্রকারের মতভেদ চিরকালই হইয়া থাকে। ইহাতে বিস্মিত বা বিচলিত হইবার কোন কারণ নাই। আমরা এস্থলে। একটি মাত্র উদাহরণ দিতে চাই। ‘তত্ত্ববোধিনীসভা’ ( প্রথম নাম—‘তত্ত্ব-রঞ্জিনী সভা) প্রতিষ্ঠিত। হওয়ার চারি বংসর পরে অর্থাৎ ইংরাজী ১৮৪৩ খৃষ্টীকে যখন ‘তত্ত্ববোধিনী পত্রিকা’ প্রথম প্রকাশিত হয়, ঠিক সেই সময়েই (১০ই ফেব্রুয়ারী১৮৪৩) The Hindu Theo-Philanthropic Society নামক একটি সভা প্রতিষ্ঠিত হয়। পৌত্তলিকতা বর্জন করিয়া, পরমাত্মরূপে ও সত্যরূপে ঈশ্বরের উপাসনা করা এবং জনসেবা করা, এই সভার উদেভ ছিল। এই সভার সহিত প্যারীচাদ মিত্র প্রভৃতির বিশেষ সম্বন্ধ ছিল। এই সভা৷ দাবী। করিতেন যে, তাহারা রাজা রামমোহন রায়েরই পদাঙ্ক অনুসরণ করিতেছেন। এই সভা অবশ্য স্থায়ী হয় নাই—মাত্র তিন বৎসর কাল ইহার পরমায়ু। কিন্তু এই তিন বৎসরের মধ্যে এই সভাবাঙ্গালা ভাষায় বহু উন্নত বিষয়ের আলোচনা করিয়াছিলেন। কিশোরীচাদ মিত্র মহাশয়, এই সভার বিশিষ্ট সভ্য ও পরিচালক ছিলেন॥ ১৮৪৫ গ্রীষ্টীকে ‘কলিকাতা রিভিউ’ পরে, তিনি রাজা রামমোহন রায় সম্বন্ধে একটি প্রবন্ধ লেখেন। এই প্রবন্ধে তিনি দেখাইয়াছিলেন যে। —হিন্দুরা বলেন যে রাজা হিন্দু ছিলেন, খ্রীষ্টানেরা বলেন যে তিনি খ্রীষ্টান। ছিলেন, আবার মুসলমানেরা বলেন, তিনি মুসলমান ছিলেন। একত্ববাদী খ্রীষ্টান ও বেদান্তমতাবলম্বিগণও তাহাকে তাহাদের আপনার লোক বলিয়া বিবেচনা করিতেন। কিশোরীচাদ মিত্র মহাশয় তাহার প্রবন্ধে সিদ্ধান্ত করিয়াছেন যে, রাজা রামমোহন রায় ঈশ্বরবিশ্বাসী বেস্থামমতাবলম্বী। ( Religious Benthonite ) ছিলেন। সুপ্র প্রসিদ্ধ গ্রীষ্টীয় প্রচারক ডাফু সাহেবের জীবনচরিত লেখক জর্জ স্মিথ বলিয়াছেন যে, মৃত্যুর সময় রাজা রামমোহন রায় বলিয়াছেন—তিনি হিন্দু, মুসলমান বা গ্রীষ্টান নহেন। স্মিথ