পাতা:অজ্ঞান তিমির নাশক.djvu/১০৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

মাণিকচন্দ্র নামে সেনাপতি ছিলেন, কথিত আছে যদিস্যাৎ মাণিকচন্দুের দলবল অপছিল,তথাপি কিঞ্চিৎ পরিশ্রমকরিলে ইংরাজের কয়েক জন সিপাহি অনায়াসে হত করি ত পারিত, কিন্তু তৎ পরিবর্তে অতিবেগে পলায়ন পরায়ণ হইলে, টিপ সৈন। ইং ১৭৫৭ সালের ২ জনের কলিকাতায় স্থলপথে উপনীত হইয়াসেঠ নামক এক ব্যক্তিকে মুরসিদাবাদে সন্ধির প্রত্যাসীয় প্রেরণ করিলেন, কিন্তু কেবল তদারাই সন্ধি ন হইয়া, মধ্যে এক ক্ষুদ্র যুদ্ধে উভয় পক্ষীয় কিঞ্চিৎ২ সৈন্য হত হইয়া, অবশেষে ইংলণ্ডীয়দিগের সাহস দেখিয়া, নবাব ভয় মৈত্রত উভয় দৃষ্টে,সন্ধি স্বীকার করিলেন, এবং কলকাতায় পূর্ব্বৰ কুঠী ও টেকসােল বনাইতে কেম্পানী আজ্ঞাপ্ত, এবং ১৯ আগষ্ট ১৭৫৭ প্রথম বঙ্গদেশে ইংরাজের মুদ্র প্রচলিত হইল, ক্লাইবের ইছ। এক দৃঢ় দুর্গপ্রস্তুত করেন, কিন্তু ব্যয় সাধক্রমে হুইবেক ইত্যৰ ধানে আরম্ভ করেন, ওয়াটসাহেব মুরাসদাবাদে প্রতিনিধিস্বৰূপ বাস করেন, কিন্তু সেরাজদৌলার অত্যন্ত ব্যবহার, সর্ব্বদাই অপমানিত হন, তজ্জন্যমানসিক বাসন,ষে এনবাবের পরিবর্ত্ত শীঘু হয়, তাহাতে সুখি হইতে পারি, দেশীয় গ্রজ সমস্তও ঐ ৰূপ উত্যক্ত, অবশেষে নদীয়, বদ্ধমান, এবং রাজসঙ্গীর, জর্মী দার সৈন্যাধ্যক্ষ মিরজাফর, প্রধান ধনী উমিচন্দ্র, এবং খোজ ওয়াজিত প্রভূত সমস্ত প্রধান লোক পরম্পর শপথ পূর্বক গোপনে এক পরামর্শ হইয়া, কালীপ্রসাদ সিংহকে কলিকাতা, প্রেরণ করেণ, প্রেরিত বাক্য এই, যে বৃটিশ সৈন্য যে আছে,