পাতা:অধিকার-তত্ত্ব.pdf/৫৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অধিকার-তত্ত্ব । 8 ৭ । যে ভারতবর্ষের ধৰ্ম্মভাব ও শাস্ত্র-সংহিতা পৃথিবীকে মোহিত করিয়াছে, যেখানকার লোকেরা সৰ্ব্বত্রেই শাস্তু বলিয়া প্রসিদ্ধ, সে দেশ এইরূপে বিনাশ পাইতেছে, ইহা দেখিয়া কাহার মনে না শোকের উদয় হুইবেক ? সেই সকল শাস্ত্রের মূল উদ্দেশ্য বিফল হইয়া যাইতেছে তাহাতে কাহার মন না যন্ত্রণাগ্রস্ত হইবেক ? ৮ । অতএব দুর্বলদিগের মধ্যে র্যাহার যেমন ধারণা-- শক্তি র্তাহাকে সেইপ্রকার স্কুল অথবা অপেক্ষাকৃত সুক্ষউপাসনায় ভক্তিপূর্বক ও বিধিপূৰ্ব্বক নিয়োগ করিতে না পারিলে এবং তাহারদের সম্মুখে শাস্ত্রের যথার্থ উদ্দেশ্য উদৃঘাটিত না করিলে তাহারদের কল্যাণের অন্য উপায় নাই । কবে তাহারণ ব্রহ্মদিগের দেখাদেখি ব্রাহ্ম হইবেন সে বৃথা আশাতেও অার অপেক্ষ করা যায় না । ষে কোন উপায়ে হউক তঁহোরদের বিশ্বাস ও ধারণার অনুযায়ী-ধৰ্ম্মেই র্তাহারদিগকে বিহিত বিধানে ব্ৰতী করা কৰ্ত্তব্য । তাহা হইলেই পাপের স্রোত অধিকাংশ নিবারিত হইয়া অনেকের ব্রহ্ম-জিজ্ঞাসা উপস্থিত হইবেক ।