পাতা:অনাথ আশ্রম - ক্ষীরোদপ্রসাদ বিদ্যাবিনোদ.pdf/৭৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ফেরালে ফো? আমার মুখ দেখবে না? না দেখ, | আমার স্বভাব নয়। যা বলি, সে সমস্ত আমার বলুন। তবে আমি বাণী-আমার সাতশে সখী সাতশো পালকী নিয়ে সম্রাট শিবিরে । পালকী খুলে যেন আমাদের কারও অমৰ্যাদা । । ना कएल ? उांज७ नवाठ भश्लिां । আমি এই সংবাদ বাদশাকে দিইগে ? : পদ্মিনী। যান -কি মা ! মনে মনে আমাকে ঘৃণা করছ? - মীরা। মা ! রূপে রাণী, আবার বুদ্ধতেও তুমি রাণী তা জানতুম না। পাপক্ষালনের জন্য তোমায় প্ৰণাম করি । । বাদল। আমি বুঝেছি।-আমিও পালকীতে চড়ব৷ . R পদ্মিনী। প্ৰতিশোধ-মীরা ! প্ৰতিশোধ ! waumillimin श्छे দৃশ্য। . [ শিবির সম্মুখ ] ) ननौवन ७ अलाडेौिन। অরুণ দেখিয়া, পূৱব চাহিয়া, ধরিনু প্রভাতী গান। ; এস এস বলি, দিমুহিয়াখুলি, দিতে গো পিয়ারে স্থান। छफूिल १शन यथांब नत्र অরুণে অরুণে মিলিল রঙ্গ अांकूल नशाम cशनिष्ठ छवि দেখিলু জাগিরা নিদাৰ্থ রবি- } প্রখর কিরণে জ্বলিয়া মরিম্ন, যাতনায় দহে প্ৰাণ ॥ " আলা। নদীবন! তুমি কঁাদছ? মুখ । মুখ ফিরিয়েই আমার একটা কথা শোন। | তোমার ক্ৰন্দনের সুর কি মিষ্টি ! কি হৃদয়- ] [ পঠনপতির প্রস্থান। | ! গ্রাহী। আমারও ওরূপ কঁদিতে ইচ্ছা যায়। ] কিন্তু নদীবন! সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠা নিয়ে আমি | এত ব্যস্ত যে, নিশ্চিন্ত হয়ে দুদণ্ড কঁাদবারও : . . . . . | নলী। তোমার সে দিন আসতে আর : অধিক বিলম্ব নাই। । । थांश | दल नौवन, डाई वन-डाई আশীৰ্ব্বাদ কর । কঁদিলে মানুষের হৃদয় প্রশস্ত । হয়। কঁদিতে না পেয়ে, আমার প্রশস্ত হৃদয় । সঙ্কুচিত হয়ে যাচ্ছে । নসী। দুনিয়ার লোককে, তুমি কঁাদাচ্ছ, - শয়তান ! তোমার হৃদয় প্রশস্ত! : আলা। নসীবন! দুনিয়ায় যদি শয়তান না থাকত, তাহ’লে মানুষকে স্বর্গের দিকে তাড়িয়ে নিয়ে যেত কে ? এই দেখ না, যারা ভুলেও এক দিন ধর্মের নাম করত না, তারা ላ'*ሳስ' | আমার তাড়নায় অস্থির হয়ে কঁদিছে, আর | | দু’হাত তুলে ঈশ্বরকে ডাকছে। যারা কেবল এতদিন নরকে যাবার পথ পরিষ্কার করছিল, । তারা আমার ভয়ে স্বর্গের অভিমূখে ছুটেছে। | শয়তানকে নিন্দ ক’র না, নসীবন! শয়তান না। থাকলে এত দিন স্বর্গের খুঁটা আলগা হয়ে । যেত। এই তোমার বাপ মৃত্যুকালে আমায় । কত আশীৰ্বাদ করে গেলেন। বললেন, “সম্রাট! : | তুমি ধন্য ! তুমিই আজ আমার জীবনের সম্পূহ · উঠিল প্ৰাণে প্রেম তরঙ্গ, ভাবি দুঃখ নিশি অবসান। | মিটিছে। ' . | করেছ।” । মই আমাকে অমূল্য ফকীরী দান । । ननी। नमां ! अभि डि९ांत्रिी बन আমার সঙ্গে এরূপ মৰ্ম্মান্তিক রহস্য করবেন না। আলা। রহস্য ? উজীর-পুত্ৰী! রহস্ত করা । প্রাণের কথা। বেশ, রহস্তই যদি বললে, তাহ’লে । বলি, দুনিয়াই একটা বিরাট বৃহন্ত ! গোল বটে, ।