পাতা:অনুবাদ-চর্চ্চা.djvu/১৫৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অম্বুবাদ-চর্চা } 36: পুত্রটিকে কোলে তুলিয়া লইয়া তিনি তাহাকে একটি শূন্ত মদের পিপার মধ্যে প্রবেশ করাইয়া দিলেন এবং বলিলেন, যদি সে বঁাচিতে চায় তবে যেন চুপ করিয়া থাকে। २० (* o এদিকে অ্যানড্রিয়া দৃঢ়স্বরে প্রশ্ন করিলেন “বাহিরে কে ?” *আমরা মিত্র”, এই বিশ্বাসঘাতী উত্তর আসিল । তাহার পত্নী তাহার পাশ্বে প্রত্যাগত হইয়া অনুনয় করিয়া বলিলেন, “স্বামিন, আমি তোমাকে মিনতি করিয়া বলিতেছি, তুমি দ্বার খুলিও না, উহা পুজুর কণ্ঠস্বর ” “গৃহিণি, আতিথেয়তার প্রয়োজনে ইহা করিতে হইবে, ইহা ধৰ্ম্মকাৰ্য্য ।” আবার দ্বারে আঘাত হইল, এবার প্রথম বারের অপেক্ষাও প্রবলতর শব্দে “রাজার দোহাই, অ্যানড্রিয়া স্ক্যাকাটোস, তোমার দরজা খোলো, শীজ খোলো।” দরজা খোলা হইল, এবং অ্যানড্রিয়া স্ক্যাকাটোস জিওভ্যানি পুজুর নিজ হস্তের গুলিতে হত হইয়। আপনার বীর্য্যবর্তী পত্নীর পাশ্বে পড়িয়া গেলেন। তিনি ঐ ভয়ানক ব্যাপার সম্পূর্ণ সংঘটিত হইতে দেখিয়া, ঐ সশস্ত্র হত্যাকারিদলের ভিতর দিয়া যুঝিতে যুঝিতে, কয়েকটি ভীষণ আঘাত লাভ করা সত্ত্বেও, বাহির হইয়া পলায়ন করিলেন । Giovanni Puzzu-কে সম্বোধন করিয়া একটি তরুণ কণ্ঠ কাতরভাবে বলিয়া উঠিল, “ধৰ্ম্মপিতা,—দেবতার দোহাই, ভগবানের সহিত শান্তি স্থাপনের জন্ত আমাকে একমুহূৰ্ত্ত জীবন ভিক্ষা দাও।” কিন্তু আবেদন বৃথাই হইল, বন্দুকের