পাতা:অনুরাধা - শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.pdf/৭৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দিলেন, বল কি গো, একেবারে পাকা কথা দিয়ে এলে?" আজকালকার ছেলে- । কর্তা কহিলেন, কিন্তু আমি তা আজকালকার বাগ নাই ? আমি আমার সেকেলে নিয়মেই ছেলে মানুষ করতে পাৱি । হরিশের পছন্দ যদি না হয় তাকে আর কোন উপায় দেখাতু বোলো । 3. ܐ܂ গৃহিণী স্বামীকে চিনিতেন, তিনি নিৰ্বাক হইয়া গেলেন কৰ্ত্তা পুনশ্চ সুবলিলেন, মেয়ে ডান-কাটা পরী না হোক ভদ্রঘরের কন্যা । সে যদি তার মায়ের সতীত্ব অ্যার কাপের হিন্দুয়ানী নিয়ে আমাদের ঘরে আসে, তাই যেন হরিশ ভাগ্য यौं भन्म ! w খবরটা প্ৰকাশ পাইতে বিলম্ব হইল না। হরিশও শুনিল। প্ৰথমে সে মনে করিল, পলাইয়া কলিকাতায় গিয়া, কিছু না জুট, টিউশনি করিয়া জীবিকা নিৰ্বাহ করিবে। পরে ভাবিল সন্ন্যাসী হইবে । শেষে, পিতা স্বৰ্গ: পিতা ধৰ্ম্মঃ পিতাহি পরািমং তপঃ-ইত্যাদি স্মরণ করিয়া স্থির হইয়া রহিল। কন্যার পিতা ঘটা করিয়া পাস্ত্ৰ দেখিতে আসিলেন, এবং আশীৰ্বাদের কাজটাও এই সঙ্গে সারিয়া লইলেন। সভায় সহরের বহু সন্ত্রান্ত ব্যক্তিই আমন্ত্রিত হইয়া আসিয়াছিলেন, নিরীহ হরকুমার কিছু না জানিয়াই আসিয়াছিলেন। তঁহাদের সমক্ষে