পাতা:অবলা প্রবলা.djvu/৮৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


१७ অবল প্রবল । কভুনাগরে কি হয়। পায়ং প্রেমভরে রহে নববয়। অভিমান কৈলে মান ভাঙ্কিবার তরে । কোন পতি যুবতীর পায় নাছি ধরে । প্রেমারি আশা করি নারীর অধীন।যুবক জনেরে কত হেরি চির দিন। তাছাতে কহিলে বড় পুরুষেরে কিসে। যুবতী যুবক যেন স্বস্তু আর সীসে । আপনার গুণ ধনি কে করে বাথান । পুরুষ কথন নছে নারীর সমান । মোহ মন্ত্রে মোহিল। মহিলা মহীতলে । অবলাই মুথে তবু সদা বলে। পতি বাক্য শুনি ধনী ঈষত্ ভূসিল । তেজি লাঙ্গ সখী ছেড়ে নাথে সম্ভাষিল। শুনহ প্রাণপতি করি নিবেদন। যুবতীর বশী ভূত যুব কি কথন পর দুঃখে দুঃখী সদা সুখী পর সুখে । অসম্ভব বাক্য তাহে শুনি তব মুখে। মিছা কেন জ্বালাতন করিছ দাসীরে । হারিলাম হারি য়াছ কেন কহ ফিরে । রায় বলে কেন ধনি করন্থ কপট । পুরুষের নাহি ক্রম নারীর নিকট। হারিল বিচারে যদি হয় অভিমানী । পুনঃ পতি প্রতি নাহি ফিরে চায় জানি। বড় হল ছোট হঙ্গ কেব। জিনে তায় । যে মান ভাঙ্গিতে হবে ধরিয়া দুপায়। হারাইলে হারিলে উভয় সুসঙ্কট । কাজেই হারি মানি নারীর নিকট । যুবতী যৌবন তাহে