পাতা:অমরনাথ (কৃষ্ণচন্দ্র রায় চৌধুরী).pdf/২৫২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আমবনাথ । శి 8ు পথ ত্যাগ কোরেচে। এখন তোমাদের বাড়ীর ঐ পথ যে এত বেড়, তবু ঐ পথ দিয়ে আমাদের বাড়ীতে আসে। আর তোমাদের বাড়ীর কাছে কত রকম বাহানা কোরে বিলম্ব করে। কখনও বা তোমাদের বাইরের ঐ ষে অীব গাছটা দিবিব বোলেতে কঁাকড়ে পোড়েছে, ঐ আঁীব গাছটার দিকে, কখনও বা একটা পার্থীর দিকে চেয়ে দাড়িয়ে থাকে,-যদি তোমাকে কোন রকমে দেখতে পায় । তা দেখতে পায় না, আর এই আমার কাছে এসে ঐ পরিচয় দ্যায় আর অমনি দুটি চক্ষের জলে ভেসে যায়। ষেন গা-নরদামার মত দুটি চক্ষু দিয়ে ধারা বয়ে চলে। চারু। বটে ? ইঃ ! তুমি আমার মন্‌টা বুঝে দেখচ বুঝি ? নীল । আমি মিথ্যে কথা বোলুচি ? কেন এ কথা তো আমি তোমাকে অনেক দিন বলিচি ? চারু। তা বোলেচ বটে, কিন্তু তার পরে এত দিন হয়ে গেল আর তে{ তুমি কিছু বলনি, তাই আমি মনে কোলেম যে, সেটা কেবল অকালের ঝড়বৃষ্টির মত ঘণ্টা খানেক ধুমধাম হয়ে একে বারে শেষ সহজ বাতাস পর্য্যস্ত বন্দ । তা অচ্ছিা সই ! আচ্ছা আমার মাথা খাও, কি কথাগুলি বলেন, তাই বল। ঠিক সেই কথাগুলি আমি চাই । নীল । তা কি সকল মনে থাকে ? এই সীমার উপর এসে অভিমান কোরে ভৎসনা করে যে, “ছোট বউ ঠাকরুণ, আমি বেশ বুঝতে পাচ্ছি আপনার মনোযোগ নেই, আমার উপর আপনার কিছু মাত্র স্নেহ নেই । তবে আর আমার এখানে তো কেউ নেই, তবে আমি মোলেম।” আমি বলি তা আমি কি করি, অামার হদ মুদ এই যে আমি তারই মনের কথা জিজ্ঞাসা কোত্তে পারি । তা তো আমি এক বার দেখিচি। তাতে দেখলেম উীর অমত। তবে আর আমার সাধ্য কি ? এই বলে যে “কেন, আপনি কি কোন কৌশল কোরে এক বীর এখানে আনতে পারেন না ? যে আমি