পাতা:অমরনাথ (কৃষ্ণচন্দ্র রায় চৌধুরী).pdf/২৭১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


२७२ - श्रमब्रनांथ } র্যাড়ে । ভাল তা যাকু –মতি দত্ত যদি এমন সতী সাবিক্তিরি হয়ে থাকে, তা হোক। এখন আমি যা বোল্‌লেম, টাকার কথা, তার কি ? আপাতক এই হলে হবে কি না তাই জিজ্ঞাসা করি।--আর আমি টাকা কড়ি দিলে তা নেয়াতে তো দোষ নেই। কমল । সে কি ? আপনি কি আমার পর না আমি আপনার পর ? আপনার টাকা আমার টাকা কি কখনও আলাদা হয়ে এসেচে, কি একত্রেই আছে ? ষাড়ে। (স্বগত) ইঃ, টাকা এমন ধন নয়। অনেক নরম । ওহঃ ! কি চমৎকার রূপ ! যত দেখছি ততই ভাল বোধ হোচ্চে । যেমন भन् Cやびマ。 খেতে ক্রমে নেশা হয়ে ঢলে পড়ে, তেমনি আমার भन्। ক্রমে মেতে উঠচে। (প্রকাশ্য) তা বটেই তো, কথাই তো এই, তুমি আমার পর না আমি তোমার পর ? পর কি ? তোমার চেয়ে আমার অাছে কে ? ঐ যে একটা বিউনে কুকুরের মত আছে, ওটাকে তো আমি দেখতেই পারিনে। যেমন শেয়ালুকে দেখলে কুকুরের রাগ হয়, তেমনি ওকে দেখলে আমার রাগ হয়। কেবল কতকগুল হাড়ের উপর একখানা চামড়া ঢাকা । যেন কোন দেউলে পড়া বড় মানুষের ঘোড়া । হাতে গয়না পেরেছেন তা হাত ঝুলিয়ে দিলে চুড়ি টুড়ি বালা টালা হাতের পোচার অদাঅদি এসে সব গুলি একেস্তার হয়ে থাকে। চন্দ্রহারগুলি সব পাছার নিচেতে এসে যড় সড় হয়ে ঝুলে থাকে, পাছ বড় দেখাবার জন্যে বিলিতি সাড়ী ছুবেড়া দিয়ে পরা হয়। গাল তুবড়ে গেছে, তা চুল কোশে টেনে বাধেন যে চোস্ত হয়, শেষ চোখের পাতা সুদ্ধ এমনি টান পড়ে যে চোক পাকিয়ে থাকতে হয়। তা আমার এই সব জন্যে এমনি হয়েছে যে, ওটা এখন মলিই আমি বঁচি । অণর রাত দিন তোমারই নিন্দে করে, তাইতে আমার সঙ্গে আসলে বনে না । তুমি যদি বলতে ওটাকে দূর করে দি। —আর নয় ত—( হস্ত ভঙ্গী ) -