পাতা:অরূপরতন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অরপরতন বিরাজদত্ত । ওহে মাধব, তোমার ঐ একট। বডে দোষ । মাধব। কী দোষ দেখলে ? বিরাজদত্ত । নিজের দেশের তুমি বড়ো নিন্দে করে । খোলা রাস্তাটাই বুঝি ভালো হোলো ? বলে তো ভাই ভদ্রসেন, খোলা রাস্তাটাকে বলে কিনা ভালো ! ভদ্রসেন । তাই বিরাজদত্ত, বরাবরই তো দেখে আসড় মাধবের ঐ এক রকম ত্যাড় বুদ্ধি । কোন দিল বিপদে পড়বেন—রজার কালে যদি যায় তাহোলে ম’লে ‘ওকে শ্মশানে ফেলবার লোক পাবেল ল । বিরাজদত্ত । আমাদের তো ভাই এই খোলা রাস্তার দেশে এসে অবধি পেয়ে শুয়ে স্থখ নেই—দিনরাত গা-ঘিনঘিন করছে। কে আসছে কে যাচ্চে তার কোনো ঠিকঠকানাই নেই-—রাম রাম । ভদ্রসেন । সে ও তো ঐ মাধবের পরামর্শ শুনেই এসেছি । আমাদের গুষ্টিতে এমন কখনো হয় নি । আমার বাবাকে তে জানো—কত বড়ো মহাত্মা লোক ছিল—শাস্ত্ৰমতে ঠিক উনপঞ্চাশ হাত মেপে গণ্ডি কেটে তার মধ্যেই সমস্ত জীবনটা কাটিয়ে দিলে—একদিনের জন্তে তার বাইরে পা ফেলেলি । মৃত্যুব পর কথা উঠল, ঐ উনপঞ্চাশ হাতের মধ্যেই তো দাহ করতে হয—সে এক বিষম মুস্কিল—শেষকালে শাস্ত্রী বিধান দিলে উনপঞ্চাশে যে দুটো অঙ্ক আছে তার বাইরে যাবার জো নেই, অতএব ঐ চার নয় উনপঞ্চাশকে উণ্টে নিয়ে নয় চার চুরানব্বই ক'রে দাও--তবেই তো তাকে বাড়ির বাইরে পোড়াতে পারি, নইলে ঘরেই দাহ করতে হোত । বাবা, এত আঁটে।-আঁাটি । একি যে-সে দেশ পেয়েছ । বিরাজদত্ত। বটেই তো, মরতে গেলেও ভাবতে হবে একি কম কথা ! > ミ