পাতা:অরূপরতন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অরপরতন নতুন সুরে গান উড়ে যায় আকাশ পারে, নতুন রঙে ফুল ফোটে তাই ভারে ভারে । কোণ্ডিল্য । তা তুমি নতুন হয়েই বইলে সে কথ। সত্যি, বুড়ো হবার সময় পেলে মা । ঠাকুরদাদা । নিজে নতুন ন হোলে সেই নতুনকে যে পাইনে।

  • ों न

ওগো আমার নিত্য নূতন দাড়াও হেসে চলব তোমার নিমন্ত্রণে নবীন বেশে । দিনের শেষে নিবল যখন পথের অালো, সাগরতীরে যাত্র। আমার যেই ফুরাল, তোমার বাশি বাজে সাঝের অন্ধকারে শূন্যে আমার উঠল তার সারে সারে । কৌণ্ডিল্য । রাখে। দাদা, তোমার গান রাখে। আজকের দিনে একট। কথা মনে বড়ো লাগছে । ঠাকুরদাদা । কী বলে। দেখি ? কৌণ্ডিল্য । এবার দেশবিদেশের লোক এসেছে, সবাই বলছে সবই দেখছি ভালে। কিন্তু রাজা দেখিনে কেন—কাউকে জবাব দিতে পারিনে । এখানে ঐটে বড়ো একটা ফাকা রয়ে গেছে । ঠাকুরদাদা। ফাকা! আমাদের এই দেশে রাজা এক জায়গায় দেখা দেয় ন। ব’লেই তো সমস্ত রাজ্যটা একেবারে রাজায় ঠাসা হয়ে রয়েছে— >*