পাতা:অরূপরতন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৫১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অরপরতন যেতুম সেখানেই ঐশ্বৰ্য্যের আলো জলে উঠত। আজ আমি এ কী অকল্যাণ সঙ্গে ক’রে এনেছি ! তাই আমি ঘর ছেড়ে পথে এলুম। সুরঙ্গম। মা, যতক্ষণ না সেই রাজার ঘরে পৌছবে ততক্ষণ তো পথই বন্ধু । স্থদর্শনা। চুপ কর, চুপ কর, তার কথা আস বলিসনে । সুরঙ্গম। । তুমি যে র্তার কাছেই ফিরে যাচ্চ । সুদৰ্শন । কখনোই না । সুরঙ্গম। । কার উপরে রাগ করছ মা ! সুদৰ্শন। আমি তার নাম করতেও চাই নে । সুবঙ্গমা । আচ্ছা, নাম কোরো না, তার সবুর সক্টলে । সুদৰ্শন । আমি পথে বেরলুম, সঙ্গে সে এল না ? সুরঙ্গম। সমস্ত পথ জুড়ে আছেন তিনি । সুদৰ্শন। একবার বারণও করলে না ? চুপ ক’রে রক্টলি যে ? বল না, তোর রাজার এ কী রকম ব্যবহার ? স্থরঙ্গম । সে তে সবাই জামে, আমার রাজা নিষ্ঠুর । তাকে কি কেউ কোনো দিন টলাতে পারে ? সুদৰ্শন। তবে তুই এমন দিন-রাত ডাকিস কেন ? সুরঙ্গম । সে যেন এমনি পৰ্ব্বতের মতোই চিরদিন কঠিন থাকে। আমার দুঃখ আমার থাক, সেই কঠিনেরই জয় হোক ! [ সুদর্শনার প্রস্থান ՏԳ