পাতা:অরূপরতন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৬৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অরুপরতন অামার স্বপন হোলে। সার । এখন প্রাণে বীণা বাজায় ভোরের তারা । দেবার মতে যা ছিল মোর নাই কিছু অার হাতে তোমার আশীৰ্ব্বাদের মালা নেব কেবল মাথে অামার ললাট ঘেরি’ ॥ সুদৰ্শন ও কে ও ! চেয়ে দেখ সুরঙ্গমা, এত রাত্রে এই আঁধারে পথে আরো একজন পথিক বেরিয়েছে যে ! স্বরঙ্গমা। মা, এ যে বিক্রম রাজ দেখছি । সুদৰ্শন । বিক্রম রাজা ? সুরঙ্গমা ! ভয় কোরো না । স্থদর্শন । ভয় ! ভয় কেন করব ? ভয়ের দিন আমার আর নেই । ( রাজা বিক্রমবাহুর প্রবেশ ) বিক্রম। তুমিও চলেছ বুঝি ! আমিও এই এক পথেরই পথিক ! আমাকে কিছুমাত্র ভয় কোরে না । স্বদর্শনা । ভালোই হয়েছে বিক্রমরাজ—আমরা দুজনে তার কাছে পাশ)পাশি চলেছি এ ঠিক হয়েছে। ঘর ছেড়ে বেরবার মুখেই তোমার সঙ্গে আমার যোগ হয়েছিল—আজি ঘরে ফেরবার পথে সেই যোগই যে এমন শুভ যোগ হয়ে উঠবে তা আগে কে মনে করতে পারত ! বিক্রম । কিন্তু তুমি যে হেঁটে চলেছ এ তো তোমাকে শোভা পায়, ○8