পাতা:অসমীয়া সাহিত্য.pdf/১০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8 অসমীয়া সাহিত্য আসিয়াছে, নদীয়ার ব্রাহমণবৈষ্ণবগরেরা আসিয়াছে। তাহারা ভারতীয় সংস্কৃতির অন্তরতম সত্তাকে এইখানে প্রতিষ্ঠিত করিয়া কামরুপ প্রাগজ্যোতিষকে অহমদের ও আদিবাসী ও অন্য আগন্তুকদের সংস্কৃতির সঙ্গে মিশাইয়া একটি স্বয়ংসম্পণে সংস্কৃতির বীজ বপন করিয়া গিয়াছে। এই প্রসঙ্গে আসাম পরাতত্ত্ব ও অনুসন্ধান বিভাগের কমকতা ডাঃ সযকুমার ভুইঞার দুই নম্বর বলেটিন হইতে কিছ: মন্তব্যের মমাথ দিতেছি— আসামের কথ্যভাষা প্রায় এক শ কুড়িটি। অস্ট্রিক, ভোটচীন, দ্রাবিড় ও আয’শাখার ভাষা। প্রত্যেকটিই জীবন্ত। অনায় বিজেতারা ক্রমশই বিজিতদের সংস্কৃতির প্রভাবে আসিয়াছিল এবং তাহারই ফলে একটি মিশ্র সংস্কৃতি ও সামাজিক ব্যবস্থা গড়িয়া উঠিয়াছিল, যাহাকে আষ রক্ষণশীলতা ও অনাযা অগোঁড়ামীর মিশ্রণ বলা যাইতে পারে—আয ও অনায ধারা রক্তবাহিকা দই নাড়ীর কাজ করিতেছিল। . . ফলে এইখানে নতন সমাতিবিধির উৎপত্তি হইয়াছিল, নতন জ্যোতিবিদ্যা ও বিজ্ঞান, নতন ধর্মসাহিত্য, যদিও ইহাব গোড়ায ছিল বৌদ্ধ চিন্তার প্রভাব। ২. অসমীয়া সাহিত্যের শৈশব ও কৈশোর প্রাচীন অসমীয়া সাহিত্যের কালবিভাগ বিচাব করিলে দেখা যায যে কলিকাতা বিশ্ববিদ্যালয় হইতে প্রায় ত্রিশ বৎসর পাবে প্রকাশিত শ্ৰীযন্ত হেমচন্দ্র গোস্বামী সম্পাদিত ‘অসমীয়া সাহিত্যের চানেকী’তে যে বিভাগ নিদেশ করা হইয়াছিল তাহা আজও গ্রহণযোগ্য। এই বিভাগ অনুসারে অসমীয়া সাহিত্যকে ছয়টি যুগে ভাগ করা যায়— অসমীয়া সাহিত্যের প্রথময়াগ গীতিয়াগ –আনুমানিক সপ্তম শতাব্দী হইতে নবম শতাব্দী পয়ালত । এই সময়কার সাহিত্য য়ই অলিখিত। ডাকের বচন, বিহুগান, শিশুদের ঘনমপাড়ানী ছড়া, এই শিশয়াগের নিদশন। অসমীয়া সাহিত্যের দ্বিতীয় যােগ মন্ত্র আর ভনিতার যুগ’—এই সময়েই লিখিত সাহিত্যের জন্ম। ত্রযোদশ শতাব্দী পর্যন্ত ইহার কাল নিদেশ করা যায়। তৃতীয় যাগের আরম্ভ হইল রামায়ণ পরাণ প্রভৃতির অনুবাদে—কবি হেমসরস্বতী, মাধব কন্দলী, পীতাম্ববর দ্বিজ প্রভৃতি এই যুগের বিশিষ্ট সাহিত্যিক। ইহাকে বলা হইয়াছে—প্রাকবৈষ্ণবীয়াগ । মহাপর্ষ শঙ্করদেবের আবিভাবের সঙ্গেসঙ্গে বৈষ্ণবী যুগের আরম্ভ । ইহাকে শুধু বৈষ্ণবীযগ বলিলে ঠিক পরিচয দেওয়া হয় না, ইহা হইল নবজাগতির যগে। তাহার পরের যুগের নামকরণ হইযাছে বিস্তারের যুগ। এই যুগের সাহিত্যের প্রধান লক্ষণ হইতেছে গভীরতা কমিয়া গিয়া কির্তৃতি বন্ধি। এই যগই রাজা শিবসিংহ, রানী ফুলেশবরীর যুগ, মাওমোরিয়া বিদ্রোহের যাগ, বমীদের সহিত যন্ধে, পতন, গাহবিবাদের যুগ। ব্রিটিশ যাগের আরম্ভ হইতে বতমান যাগের আরম্ভ। এই যুগের সাহিত্যে ইংরেজী ও বাংলা সাহিত্যের প্রভাব প্রচুর। এই যুগবিভাগকে মোটামুটি মানিয়া লইলেও সন্তে ইতিহাসসম্মত ও ভাষাতত্ত্বান মোদিত বিভাগ অনুযায়ী প্রথম ও দ্বিতীয যুগ, ও চতুথ ও পঞ্চম যুগকে