পাতা:আকাশ-প্রদীপ-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/২৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
আকাশ-প্রদীপ

 উপরের তলা থেকে
 চেয়ে দেখে
 না-দেখা গভীরে ওর মায়াপুরী এঁকেছিনু মনে।
 নাগকন্যা মানিক দর্পণে
 সেথায় গাঁথিছে বেণী,
 কুঞ্চিত লহরিকার শ্রেণী
 ভেসে যায় বেঁকে বেঁকে
 যখন বিকেলে হাওয়া জাগিয়া উঠিত থেকে থেকে।
 তীরে যত গাছ পালা পশু পাখি
 তারা আছে অন্যলোকে, এ শুধু একাকী।
 তাই সব
 যত কিছু অসম্ভব
 কল্পনার মিটাইত সাধ,
 কোথাও ছিল না তার প্রতিবাদ।


 তারপরে মনে হোলো একদিন,
 সাঁতারিতে পেল যারা পৃথিবীতে তারাই স্বাধীন
 বন্দী তারা যারা পায় নাই।
 এ আঘাত প্রাণে নিয়ে চলিলাম তাই
 ভূমির নিষেধ গণ্ডি হোতে পার।
 অনাত্মীয় শত্রুতার

১৬