পাতা:আকাশ-প্রদীপ-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/৩১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
আকাশ-প্রদীপ
 

 একদিন পুতুলের বিয়ে,
 পত্র গেল দিয়ে।
 কলরব করেছিল হেসে খেলে
 নিমন্ত্রিত দল। আমি মুখচোরা ছেলে
 একপাশে সংকোচে পীড়িত। সন্ধ্যা গেল বৃথা
 পরিবেষণের ভাগে পেয়েছিনু মনে নেই কী তা।
 দেখেছিনু দ্রুতগতি দুখানি পা আসে যায় ফিরে
 কালো পাড় নাচে তারে ঘিরে।
 কটাক্ষে দেখেছি, তার কাঁকনে নিরেট রােদ
 দুহাতে পড়েছে যেন বাঁধা। অনুবােধ উপরােধ
 শুনেছিনু তার স্নিগ্ধ স্বরে।
 ফিরে এসে ঘরে
 মনে বেজেছিল তারি প্রতিধ্বনি
 অর্ধেক রজনী।
 তারপরে একদিন
 জানাশােনা হােলো বাধা
 একদিন নিয়ে তার ডাক নাম
 তারে ডাকিলাম।
 একদিন ঘুচে গেল ভয়
 পরিহাসে পরিহাসে হােলো দোঁহে কথা বিনিময়।
 কখনাে বা গড়ে-তােলা দোষ
 ঘটায়েছে ছল-করা রােষ।

২০