পাতা:আকাশ-প্রদীপ-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/৩৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
আকাশ-প্রদীপ

 ক্ষণে ক্ষণে অন্যমনা
 তারি পরে চলে আনাগোনা।
আয়নাফ্রেমের তলে ছেলেবেলাকার ফোটোগ্রাফ
 কে রেখেছে, ফিকে হয়ে গেছে তার ছাপ।
 পাশাপাশি ছায়া আর ছবি ।
 মনে ভাবি আমি সেই রবি,
স্পষ্ট আর অস্পষ্টের উপাদানে ঠাসা
 ঘরের মতন; ঝাপসা পুরানো ছেঁড়া ভাষা
আসবাবগুলো যেন আছে অন্যমনে।
 সামনে রয়েছে কিছু, কিছু লুকিয়েছে কোণে কোণে।
 যাহা ফেলিবার
 ফেলে দিতে মনে নেই। ক্ষয় হয়ে আসে অর্থ তার
 যাহা আছে জ’মে ।
 ক্রমে ক্রমে
 অতীতের দিনগুলি
মুছে ফেলে অস্তিত্বের অধিকার।  ছায়া তারা
 নূতনের মাঝে পথহারা;
যে অক্ষরে লিপি তারা লিখিয়া পাঠায় বর্তমানে।
 সে কেহ পড়িতে নাহি জানে ॥


১১।৯।৩৮





২৮