পাতা:আকাশ-প্রদীপ-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/৪৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
আকাশ-প্রদীপ

 সে কোন্ ভাষা আলোর সোহাগ
 শূন্যে বেড়ায় খুঁজি।
 মর্ম তাহার স্পষ্ট নাহি বুঝি,
 তবু যেন অদৃশ্য তার চঞ্চলতা
 রক্তে জাগায় কানে কানে কথা,
 মনের মধ্যে বুলায় যে অঙ্গুলি
 আভাস-ছোঁওয়া ভাষা তুলি
 সে এনে দেয় অস্পষ্ট ইঙ্গিত
 বাক্যের অতীত।


ঐ যে বাকলখানি
 রয়েছে ওর পর্দা টানি
 ওর ভিতরের আড়াল থেকে আকাশ-দূতের সাথে
 বলা কওয়া কী হয় দিনে রাতে,
 পরের মনের স্বপ্ন কথার সম
 পৌছবে না কৌতুহলে মম।
 দুয়ার দেওয়া যেন বাসর ঘরে
 ফুলশয্যার গোপন রাতে কানাকানি করে,
 অনুমানেই জানি
 আভাসমাত্র না পাই তাহার বাণী।
 ফাগুন আসে বছর শেষের পারে
 দিনেদিনেই খবর আসে দ্বারে।


৩২