পাতা:আকাশ-প্রদীপ-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/৫৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
আকাশ-প্রদীপ

পানাপুকুর, ভাঙনধরা ঘাট,
অফলা এক চালতা গাছের চলে ছায়ার নাট।
চক্ষু বুজে ছবি দেখি, কাৎলা ভেসেছে
বড়াে সাহেবের বিবিগুলি নাইতে এসেছে।
ঝাউ গুঁড়িটার পরে
কাঠঠোকরা ঠকঠকিয়ে কেবল প্রশ্ন করে।
আগে কানে পৌঁছত না ঝিঁ ঝিঁ পােকার ডাক,
এখন যখন পােড়ো বাড়ি দাঁড়িয়ে হতবাক
ঝিল্লিরবের তানপুরা-তান স্তব্ধতা সংগীতে
লেগেই আছে একঘেয়ে সুর দিতে।
আঁধার হােতে না হােতে সব শেয়াল ওঠে ডেকে
কলমিদিঘির ডাঙা পাড়ির থেকে।
পেঁচার ডাকে বাঁশের বাগান হঠাৎ ভয়ে জাগে,
তন্দ্রা ভেঙে বুকে চমক লাগে।
বাদুড়ঝােলা তেঁতুল গাছে মনে যে হয় সত্যি
দাড়িওয়ালা আছে ব্রহ্মদত্যি।
রাতের বেলায় ডােমপাড়াতে কিসের কাজে,
তাকধুমাধুম বাদ্যি বাজে।
তখন ভাবি একলা ব’সে দাওয়ার কোণে
মনে মনে
ঝড়েতে কাৎ জারুল গাছের ডালে ডালে
পিরভু নাচে হাওয়ার তালে।

৪৫