পাতা:আকাশ-প্রদীপ-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/৫৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
আকাশ-প্রদীপ
 

শহর জুড়ে নামটা ছিল, যেদিন গেল ভাসি
হলুম বনগাঁবাসী।
সময় আমার গেছে ব’লেই সময় থাকে প’ড়ে,
পুতুল গড়ার শূন্য বেলা কাটাই খেয়াল গ’ড়ে।
সজনে গাছে হঠাৎ দেখি কমলাপুলির টিয়ে,
গােধূলিতে সূয্যিমামার বিয়ে,
মামি থাকেন সােনার বরন ঘােমটাতে মুখ ঢাকা,
আলতা পায়ে আঁকা।
এইখানেতে ঘুঘুডাঙার খাঁটি খবর মেলে
কুলতলাতে গেলে।
সময় আমার গেছে ব’লেই জানার সুযােগ হোলো,
“কলুদ ফুল” যে কা’কে বলে, ঐ যে থােলো থােলো
আগাছা জঙ্গলে
সবুজ অন্ধকারে যেন রােদের টুকরাে জ্বলে।
বেড়া আমার সব গিয়েছে টুটে;
পরের গােরু যেখান থেকে যখন খুশি ছুটে
হাতার মধ্যে আসে
আর কিছু তাে পায় না, খিদে মেটায় শুকনাে ঘাসে।
আগে ছিল সাট্‌ন্ ‌বীজে বিলিতি মৌসুমি,
এখন মরুভূমি।
সাতপাড়াতে সাতকুলেতে নেইকো কোথাও কেউ
মনিব যেটার, সেই কুকুরটা কেবলি ঘেউ ঘেউ

}}

৪৬