পাতা:আকাশ-প্রদীপ-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/৬৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
আকাশ-প্রদীপ
 

তাই বসে একা
প্রথম দেখার ছন্দে ভরি লই সব শেষ দেখা।
সেই দেখা মম
পরিস্ফুটতম।
বসন্তের শেষমাসে শেষ শুক্ল তিথি
তুমি এলে তাহার অতিথি,
উজাড় করিয়া শেষ দানে
ভাবের দাক্ষিণ্য মাের অন্ত নাহি জানে।
ফাল্গুনের অতিতৃপ্তি ক্লান্ত হয়ে যায়,
চৈত্রে সে বিরলরসে নিবিড়তা পায়,
চৈত্রের সে ঘন দিন তােমার লাবণ্যে মূর্তি ধরে;
মিলে যায় সারঙের বৈরাগ্যরাগের শান্তস্বরে,
প্রৌঢ় যৌবনের পূর্ণ পর্যাপ্ত মহিমা
লাভ করে গৌরবের সীমা।


হয়তাে এ সব ব্যাখ্যা স্বপ্ন অন্তে চিন্তা ক’রে বলা,
দাম্ভিক বুদ্ধিরে শুধু ছলা,
বুঝি এর কোনাে অর্থ নাইকো কিছুই।
জ্যৈষ্ঠ-অবসান দিনে আকস্মিক জুঁই
যেমন চমকি জেগে উঠে,
সেই মতাে অকারণে উঠেছিল ফুটে,

৫২