পাতা:আখ্যানমঞ্জরী (দ্বিতীয় ভাগ) - ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর.pdf/৫৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

৫২

আখ্যানমঞ্জরী।

 তাঁহার এই প্রার্থনা শুনিয়া আমি বলিলাম, না, না; আমি একমুহূর্ত্তের জন্যও প্রাণনাশের আশঙ্কা করিবেন না, আপনি এই মুহূর্ত্ত হইতে স্বাধীন হইলেন, এই বলিয়া, পাথেয স্বরূপ সহস্র স্বর্ণমুদ্রার একটি থলি তাহার হস্তে দিয়া বলিলাম, আপনি অবিলম্বে প্রস্থান করুন, এবং স্নেহাস্পদ পরিবারবর্গের সহিত মিলিত হইয়া, সংসারযাত্রা সম্পন্ন করুন। আপনাকে ছাডিয়া দিলাম, এজন্য আমার উপর খলীফাব মর্মান্তিক ক্রোধ ও দ্বেষ জম্মিবে, তাহার সন্দেহ নাই, কিন্তু যদি, আপনার প্রাণবক্ষা করিতে পারি, তাহা হইলে সে জন্য আমি অণুমাত্র দুঃখিত হইব না।

 আমার প্রস্তাব শুনিয়া তিনি বলিলেন, আপনি যাহা বলিতেছেন, আমি কখনই তাহাতে সম্মত হইতে পারিব না, আমি এত নীচাশয় ও স্বার্থপর নহি যে, কিছুকাল পূর্ব্বে, যে প্রাণের রক্ষা করিযাছি, আপন প্রাণরক্ষার্থে, এক্ষণে সেই প্রাণের বিনাশের কারণ হইব। তাহা কখনই হইবে না। যাহাতে খলীফা আমার উপর অক্রোধ হন, আপনি দযা করিয়া, তাহার যথোপযুক্ত চেষ্টা দেখুন; তাহা হইলেই আপনাকর প্রকৃত কৃতজ্ঞতা প্রদর্শন করা হইবে; যদি আপনকার চেষ্টা সফল না হয়, তাহা হইলেও, আমার আর কোনও ক্ষোভ খাকিবে না।