পাতা:আগামীকাল - শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.pdf/৫৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মরলেন না ত, মোদের মাইরে গেলেন ! " किन कि शाश् ? কি হয়েছে তা মোদের হাল দেখে আপনি ঠাহৱ পাতিছ না! দই ক্লোশ পথ পাড়ি দিতেই গা দিয়ে ঘামের জোয়ার বইতিছে । এখনও সমখে তিন ক্লেশ গেলে তবে মরার শেষ সাধ মিটবে গো পলিস বাবা । তোদের কথাবাতা সবই কেমন যেন হেয়ালিতে ভরা। পরিণকার করে বল ত আসিল ব্যাপারটা কি ? বিমল বললে, আসল ব্যাপার শািনলি আপনিই অবাক মানবে গো পলিস বাবা । তবে কতিহু শোন, উনি তা মরলেন ; মরার আগে শেষ বাসনা জানালে, মোর এক বাড়ি পিসিমা রইছেন । জন্ম দিতে যাইয়ে মা মারা গেলে পিসিমাই নাকি ওকে কোলে-পিঠে করে লায়েক করে তোলেন। বললে, মোরে শামশানে নেয়ার আগে তেনারে একবারটি দেখাবা। ওই বািড়র বয়স নাকি পাঁচ কুড়ি ধরে ধরে। বে’কে চড়ে দিলা পাকিয়ে গেছে, এক্কেবারে নাড়ােবড়ি অবস্থা ! ক ও দেখিনি, কী ঝকমারিতেই না পড়া গোলরেল दाद ! তা তোমরা ত পাঁচ ক্লোশ পথ মরা টেনে না নিয়ে বরং বাড়িকে নিয়ে এসে দেখিয়ে DB DBBDD BBD SBB BB DBDD DBBB BDD DDSDDD SS মনে ভরসা জাগল না পলিস বাবা । 【卒R? শেষ পর্যন্ত যদি বাড়ি মেরে খানের দায়ে পড়তে হয়। পাঁচ কুড়ি বয়েস হয়েছে। তার ওপর নাড়া-বড়ি পাকিয়ে গেছে। শেষ পর্যন্ত হয়ত দেখা যেত, মাকে দেখতি এসে বাড়িই মােঝ-পথে টেসে গিছে। তখন ? তখন ঠ্যােলা সামালাবি কিড়া ? হাঁ, কথাটা একদিক থেকে ঠিকই বলেছ বটে । রমেন ইতিদধ্যেই পথের ধারে কপালে হাত দিয়ে বসে অনবরত হাঁপানি রোগীর মত হাঁপাচ্ছে আর থেকে থেকে কাঁশিতে শার করেছে। বিমল ওর দিকে অঙ্গলি নির্দেশ করে। বললে, তার ওপর তেনার ব্যাপারটা ত রয়েই গেছে পলিসবাবা। হাঁপানি রোগে এমনিতেই কথািট পাতিছেন। তার ওপর পথের ধকল ত আছেই। ব্যস, কিছটা পথ হাঁটতে না হাঁটতেই হাঁপানির টান গোল বেড়ে । এখন আপনিই কও দেখি নি কাকে সামলাই ? মরা ফেলে রোগী সামলাতে গেলে, বাসি ময়া হবে । পাঁচে ঢোল হবে । শেয়ালে টানাটানি জড়ে দেয়াও কিছুমাত্র আশিষ নয়। পলিস-ইন্সপেক্টর ভজহরিবাব বললেন, তোমরাও চরম বোকামি করেছ হে! gt D BD DDBYz DD DD DS BBD SsKDu SBDBSBD DBSDD D DBBBDB t চলছিলইনা হে । EEBB uDuD DBDBB BDBDDBDB S DBB DDBD D uDuBDSDtu L SLLLz বাবা মরেছেন। কিনা। বড়োর একমাত্র ছেলে । মোরা ত আর পাঁচ কোণ পথ ঠেঙিয় &