পাতা:আত্মচরিত (প্রফুল্লচন্দ্র রায়).djvu/১৬৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পলিনবিহারী সরকার এদেশে তাঁহার অধ্যয়ন সমাপ্ত করিয়া পারিতে যান এবং সোরবোনে অধ্যাপক উরবেনের গবেষণাগারে তিনবৎসরকাল "Rare Earths" (দাপ্রাপ্য মত্তিকা) সম্বন্ধে গবেষণা করেন। কেমিক্যাল হোমলজি সম্বন্ধে তাঁহার নতনতম গবেষণা তাঁহার কৃতিত্বের পরিচায়ক। রাজেন্দ্রলাল দে ১৯১৩—১৬ সালে প্রেসিডেন্সি কলেজে আমার শিক্ষাধীনে রিসাচ্চ" কলার ছিলেন। আমার সঙ্গে একযোগে নাইট্রাইট ও হাইপো-নাইট্রাইট সম্বন্ধে কতকগুলি মৌলিক প্রবন্ধ তিনি প্রকাশ করেন। তিনি নিজে সবাধীনভাবেও ভ্যালেন্সি' সম্বন্ধে কতকগুলি মৌলিক প্রবন্ধ প্রকাশ করিয়াছেন। বতমানে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যতম লেকচারার’ । আর একজন কৃতী ছাত্র প্রফুল্লকুমার বসল। রসায়ন শাস্ত্রের উন্নতি ও বিকাশ সম্পবন্ধে সম্প্রতি যে বাষিক বিবরণী বাহির হইয়াছে তাহাতে বসর মৌলিক গবেষণার যথেষ্ট সংখ্যাতি করা হইয়াছে। গোপালচন্দ্র চক্লবতী ১৯২২—২৪ সাল পর্যন্ত আমার নিকট রিসাচ সকলার ছিলেন এবং সালফার কপাউণ্ড ও সিনথেটিক ডাই সম্বন্ধে বহল মৌলিক গবেষণামলেক প্রবন্ধ তিনি প্রকাশ করিয়াছেন। গোপালচন্দ্র ১৯২৮ সালে ডি, এস-সি’ উপাধি লাভ করেন। বতমানে তিনি বাঙ্গালোরে ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব সায়েন্সে লেকচারার। যোগেন্দ্র চন্দ্র বন্ধন অধ্যাপক প্রফুল্ল চন্দ্র মিত্রের শিক্ষাধীনে জৈব রসায়ন সম্বন্ধে অক্লান্তকমী ছাত্র ছিলেন। কলিকাতা বিশ্ববিদ্যালয় হইতে ডক্টর উপাধি লাভ করিবার পর তাঁহাকে “পালিত বৈদেশিক বত্তি” দেওয়া হয়। ইম্পিরিয়াল কলেজ অব সায়েন্সে অধ্যাপক থপের নিকট তিনি তিন বৎসরকাল গবেষণা করেন এবং লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয়ের ডক্টর উপাধি লাভ করেন। তারপর তিনি হল্যাণ্ডে গিয়া অধ্যাপক রজিকার নিকট কিছুকাল শিক্ষা করেন। ‘Balbiano's Acid' সম্বন্ধে তাঁহার গবেষণা অতি মল্যবান। মনোমোহন সেনও অধ্যাপক প্রফুল্লচন্দ্র মিত্রের শিক্ষাধীনে থাকিয়া একটি মৌলিক রাসায়নিক গবেষণার জন্য ডক্টর উপাধি লাভ করেন। বীরেশচন্দ্র গহে সায়েন্স কলেজের একজন কৃতী ছাত্র এবং আমার লেবরেটরিতে রিসার্চ স্কলার ছিলেন। তিনি টাটা বত্তি লাভ করিয়া ইয়োরোপ গমন করেন। লন্ডনের ইউনিভারসিটি কলেজে অধ্যাপক ড্রামণ্ডের শিক্ষাধীনে তিনি বাইওকেমিষ্ট্ৰী সম্বন্ধে বিশেষভাবে অধ্যয়ন করেন। পরে কেরিজে অধ্যাপক হপকিনসের নিকটও তিনি ঐ বিষয়ে শিক্ষালাভ করেন। লন্ডনে পি-এইচ, ডি ও ডি এস-সি, উপাধি লাভ করিয়া তিনি বাইওকেমিষ্ট্ৰী সম্বন্ধে বিশেষজ্ঞদের নিকট শিক্ষালাভ করিবার জন্য বালিন ও ভিয়েনায় যান। তিনি ইয়োরোপে বিশেষ কৃতিত্ব অজন করিয়া সম্প্রতি দেশে ফিরিয়াছেন; বাইওকেমিষ্ট্ৰী সম্বন্ধে তিনি কয়েকটি মৌলিক প্রবন্ধ প্রকাশ করিয়াছেন। সশীলকুমার মিত্র আমার গবেষণাগারে রিসাচ স্কলার ছিলেন। তিনিও কয়েকটি বিষয়ে বিশেষ মৌলিকতার পরিচয় দিয়াছেন। - আমার সহকমী অধ্যাপক জে, এন, মুখাজী এবং এইচ, কে, সেনের লেবরেটরিতে তাঁহাদের কৃতী ছাত্রদের দ্বারা কয়েকটি মল্যবান মৌলিক গবেষণা হইয়াছে। এ পর্যন্ত ভারতীয় রসায়নবিদেরা সাধারণতঃ ইংলণ্ড, জামানি এবং আমেরিকার পত্রিকাসমাহেই তাঁহাদের মৌলিক প্রবন্ধগুলি প্রকাশ করিবার জন্য পাঠাইতেন। আমাদের এখন মনে হইল যে ভারতেই আমাদের একটি রাসায়নিক সমিতি প্রতিষ্ঠা করা উচিত এবং তাহার একখানি মুখপত্রও থাকা প্রয়োজন। অধ্যাপক ভাটনগরের যে বস্তৃতা ইতিপবে উথত করা