পাতা:আত্মচরিত (প্রফুল্লচন্দ্র রায়).djvu/২৯১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ত্রয়োবিংশ পরিচ্ছেদ বতমান সভ্যতা—ঘনতন্ত্রবাদ—যান্ত্রিকতা এবং বেকার সমস্যা (১) পণ্যের অতি উৎপাদন এবং তাহার পরিণাম—বেকার সমস্যা ইয়োরোপ ও আমেরিকা হইতে সম্প্রতি যে শোচনীয় বেকার সমস্যার বিবরণ পাওয়া ཧྥུ་རོགས་ཤུན ཨ་ཙ། བཙུན་མ་ ༨༠ དང་། ཨང་ཨ་ཨང་ཀར་ཟ bར་། ཨ་ཨཱ་༔ t༢ང་ལ་རྩ། ལཱ་མ་ | সকলেই জানেন, পথিবীব্যাপী আর্থিক মন্দা চারিদিকে কি অনিষ্টকর ফল প্রসব করিতেছে। ইংলণ্ড, আমেরিকার যুক্তরাষ্ট্র, জামানী প্রভৃতি দেশে বেকার সমস্যা অতিমাত্রায় বাড়িয়া চলিয়াছে। ভারতেও বেকার সমস্যার অন্ত নাই, কিন্তু এখানে হতভাগ্য বেকারদের সংখ্যা নির্ণয়ের কোন চেষ্টা হয় নাই। শনা যায়, আমেরিকায় বেকারের সংখ্যা প্রায় ৮০ লক্ষ। টাইমসের নিউইয়কের সংবাদদাতা বলেন, “বহ পথানে মধ্যবিত্ত লোকের অবস্থা শোচনীয় হইয়া উঠিয়াছে। সহস্ৰ সহস্র কেরাণী মজুরের কাজ করিতেছে বা ঐ কাজ পাইবার জন্য চেষ্টা করিতেছে।...এরপ বহল পরিবার তাহদের সন্তানদের সমস্ত দিন বিছানাতেই শোয়াইয়া রাখিতেছে। কেননা ঘর গরম করিবার জন্য প্রয়োজনীয় ইন্ধন সংগ্রহের ক্ষমতা তাহাদের নাই।” "এর চেয়েও শোচনীয় কাহিনী আছে। একটি সংবাদে আছে যে, সহরের কতারা সমস্ত জঞ্জালাধার তালাবদ্ধ করিয়া রাখিয়াছেন, পাছে লোকে রাত্রিতে ঐ সমস্ত স্থান হইতে ক্ষুধার জালায় পচা খাদ্য সংগ্ৰহ করিয়া খায় এবং তাহার ফলে তাহদের দেহ বিষাক্ত হয়! একটি লোক একটকেরা রুটি চুরী করিয়া ধরা পড়ে। এই ঘণা ও অপমানের ফলে শেষে সে আত্মহত্যা করে। দভিক্ষ বা বন্যা প্রভৃতির সময়ে আমাদের দেশেও এরপ ঘটনা ঘটিতে দেখা যায়। চরম দদশায় পড়িয়া এদেশের লোক সী পত্র কন্যা বিক্ৰয় করিয়াছে, আত্মহত্যা পর্যন্ত করিয়াছে। আশচয্যের বিষয় এই যে, আমেরিকার মত ঐশবষশালী দেশেও এরপ দরবস্থা হইতে পারে। শনা যায়, এই সব বেকারদের অভাব মোচন করিবার জন্য ২২ লক্ষ পাউন্ডের প্রয়োজন। আমেরিকার কোটিপতিদের পক্ষে এই টাকা সংগ্রহ করা কঠিন নহে। আমেরিকায় এত লক্ষপতি, কোটিপতি থাকিতেও, সে দেশে এরাপ হদয়বিদারক ব্যাপার কেন ঘটিতেছে ?” (পথানীয় কোন সংবাদপত্র হইতে উদ্ধত— তাং ১৬ই ডিসেম্বর, ১৯৩০) সৌভাগ্যক্রমে এক দল নতন অর্থনীতিবিদের উম্ভব হইয়াছে। ইহারা সমস্যাটি গভীরতর ভাবে দেখিয়া জগদব্যাপী বেকার সমস্যার প্রকৃত কারণ নির্ণয় করিয়াছেন। প্রায় দই বৎসর পবে (১৯২৮) কলিকাতার স্টেটসম্যানে নিম্নলিখিত মন্তব্য প্রকাশিত হয় – "পাশ্চাত্য দেশ সমহে শিল্প বাণিজ্যের যে সঙ্গীন অবস্থা হইয়াছে, তাহার প্রতিকারের একমাত্র পথ উৎপন্ন দ্রব্যের পরিমাণ হ্রাস করা। কিন্তু ইহার ফলে বেকার সমস্যার সন্টি অবশ্যম্ভাবী। দইটি শিল্পের কথাই ধরা যাক, আমেরিকা ছয় মাসে যে পরিমাণে বট ও জনতা তৈরী করে তাহাতে তাহার এক বৎসর চলে, এবং সতের সপ্তাহে এক বৎসরের