পাতা:আত্মচরিত (প্রফুল্লচন্দ্র রায়).djvu/৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আমার আত্মচারতের বাংলা সংস্করণ প্রকাশিত হইল। আমাদের দেশে রসায়ন বিদ্যার চচা এবং রাসায়নিক গোষ্ঠী গঠনের একটা ধারাবাহিক ইতিহাস ইহাতে লিপিবদ্ধ হইয়াছে। তব্যতীত প্রায় অধ’ শতাব্দী ব্যাপী অভিজ্ঞতামূলক সমসাময়িক অর্থনীতি, শিক্ষাপদ্ধতি ও তাহার সকোর, সমাজ-সংস্কার প্রভৃতি বিবিধ বিষয়ক সমালোচনা এই পস্তকের বিষয়বস্তু হইয়াছে। বাঙালী আজ জীবন মরণের সন্ধিস্থলে উপস্থিত। একটা সমগ্র জাতি মাত্র কেরানী বা মসজিীবী হইয়া টিকিয়া থাকিতে পারেনা; বাঙালী এতদিন সেই ভ্রান্তির বশবর্তী হইয়া আসিয়াছে এবং তাহারই ফলে আজ সে সকল প্রকার জীবনোপায় ও কমক্ষেত্র হইতে বিতাড়িত। বৈদেশিকগণের ত কথাই নাই, ভারতের অন্যান্য প্রদেশস্থ লোকের সহিতও জীবন সংগ্রামে আমরা প্রত্যহ হটিয়া যাইতেছি। বাঙালী যে নিজ বাস ভূমে পরবাসী হইয়া দাঁড়াইয়াছে, ইহা আর কবির খেদোন্তি নহে, রাঢ় নিদারণ সত্য। জাতির ভবিষ্যৎ যে অন্ধকারাবত, তাহা বঝিতে দরদস্টির প্রয়োজন হয় না। কিন্তু তাই বলিয়া আশা ভরসার জলাঞ্জলি দিয়া হাত গটাইয়া বসিয়া থাকিলেও চলিবে না। বৈষ্ণবী মায়া ত্যাগ করিয়া দঢ়হন্তে বাঁচবার পথ প্রস্তুত করিয়া লইতে হইবে। বাল্যকাল হইতেই আমি অর্থনৈতিক সমস্যার প্রতি আকৃষ্ট হইয়াছি এবং পরবতী জীবনে শিক্ষা ও বিজ্ঞান চর্চার ন্যায় উহা আমার জীবনে ওতপ্রোতভাবে মিশিয়া গিয়াছে। কিন্তু কেবল সমস্যার আলোচনা করিয়াই আমি ক্ষান্ত হই নাই, আংশিকভাবে কমক্ষেত্রে উহার সমাধান করিতে চেষ্টা পাইয়াছি। সেই চেষ্টার ইতিহাস আত্মচরিতে দিয়াছি। এই পতকখানিকে জনসাধারণের বিশেষতঃ গহ-লক্ষীদের অধিগম্য করিবার জন্য চেস্টার যটি হয় নাই। নিঃশেষিতপ্রায় ইংরাজী সংস্করণের মলা পাঁচ টাকা নির্ধারিত হইয়াছিল। বাংলা সংস্করণের কলেবর ইংরাজী পতকের তুলনায় কিঞ্চিং বহত্তর হইলেও ইহার মূল্য পাঁচ টাকার স্থলে মাত্র আড়াই টাকা করা গেল। পরিশেষে বক্তব্য এই যে, সা-প্রসিদ্ধ সাহিত্যিক শ্ৰীয়াত প্রফুল্লকুমার সরকার এই পশতকের ভাষান্তর কাষে আমাকে বিশেষ যাহায্য করিয়াছেন এবং বেংগল কেমিক্যালের প্রচার বিভাগের শ্রমান শৈলেন্দ্রনাথ ঘোষ, এম, এ, মদ্রাকন কাষের ভার লইয়া আমার শ্রমের যথেষ্ট লাঘব করিয়াছেন। ১লা অক্টোবর ১৯৩৭।