পাতা:আত্মচরিত (শিবনাথ শাস্ত্রী).pdf/১৬২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চতুর্থ পরিচ্ছেদ । ১৮৭০ সালের প্রারম্ভে কেশববাবুবিলাত গেলেন। র্তাহার বিচ্ছেদে আমার মনে বড় ক্লেশ হইয়াছিল। দীক্ষার পর তাতার সহিত আমার BBDBYS DDDS SDDBBB BDDB TDB BDD DDBDS BBBDB DDD আমাকে দেখিলেই শ্ৰীত হইতেন, আমি তাহাকে দেখিলে শ্ৰীত হইতাম । আমার সঙ্গে তার হাসি ঠাট্ট রসিকতা চলিত। একবার একজন আমাকে বলিয়াছিলেন, কেশববাবুর মনের একটা চাবি তোমার কাছে SBLL SS S DDDt DDD BDBDD DBBBD DBBBDB BDDD BK DBBBLD সংকোচ বোধ হইত না । অবাধে সকল কথা তার কানো ঢালিতাম । এনন কি, তাহার যে কথা আমার মনের সঙ্গে না মিলিত তাজাও "তাঁহাকে জানাইতে আমার সংকোচ-বোধ হইত না । ঠাঙ্গার সহিত আমার কিরূপ হাসিঠাট্টা চলিত তাহার কয়েকটা দুষ্টান্ত এখানে উল্লেখ করা মন্দ নয়। একবার হরিনাভি ব্ৰাহ্মসমাজের বাধিক উৎসবে প্ৰাতঃকালীন উপাসনাতে আচাৰ্য্যের কাৰ্য্য করিবার জন্য আমি তাঁহাকে রাজি করি। আমি তখন হরিনাভি স্কুলের হেডমাষ্টার। তিনি প্ৰত্যুষে কলিকাতা হইতে যাত্ৰা করিয়া প্ৰাতে গিয়া আমার বাড়ীতে উপস্থিত হইলেন। আমি তঁহার প্রাতরাশের জন্য কিছু খাবার প্রস্তুত রাখিয়াছিলাম। আমি জানিতাম, তিনি প্ৰাতে অপরাপর জিনিসের মধ্যে ভিজা ছোলা ও আদা খাইয়া থাকেন। সুতরাং ভিজা ছোলা ও আদা প্ৰস্তুত রাখা হইয়াছিল। ভিজা ছোলা দেখিয়াই তিনি ভারি খুসী হইলেন, বলিলেন, “বাৰু, আমি যে প্ৰাতে ভিজা ছোলা খাই, তাহা জানিলে কিরূপে ?”