পাতা:আত্মচরিত (শিবনাথ শাস্ত্রী).pdf/২২২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


RRO শিবনাথ শান্ত্রিীর আত্মচারিত ভাড়া করিয়া ভারত-সভার আপিস স্থাপন করিলাম। সে আপিস-ঘরের অবস্থা দেখিয়া সুপ্ৰসিদ্ধ সুরসিক কবি ইন্দ্ৰনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়, তঁাজার প্ৰণীত ভারত উদ্ধার কাব্যে লিখিলেন, “কড়ি আগে পড়ে কিম্বা দড়ি আগে ছেড়ে ।” বাস্তবিক উহার দশা ঐ প্রকারই ছিল। এই ৯৩ নং কলেজ ষ্ট্রীট ভবনের ভিতর দিকে কতকগুলি ব্ৰাহ্মবন্ধু থাকিতেন, তঁহাদের সঙ্গে আমি কিছুদিন ছিলাম। তখন ভারত-সভার ঘরে কমিটীর সন্মতিক্ৰমে “সমদৰ্শী” দলেরও বৈঠক চলিত। এখানে থাকিবার সময়ই আমি বিষয়-কৰ্ম্ম ত্যাগ করিয়া ব্ৰাহ্মসমাজের সেবাতে আত্মোৎসর্গ করি। যে চিরস্মরণীয় রাত্ৰে কেশব বাবুর নিকট প্রতিবাদ পত্র প্রেরণের প্রস্তাব নিৰ্দ্ধারণ হয়, সে রাত্রে এই ভারত-সভার গৃহেই আমাদের বৈঠক হইয়াছিল। বলিতে কি ভারতসভা ও সাধারণ ব্ৰাহ্মসমাজ যেন যমজ সহোদরের ন্যায় ভূমিষ্ঠ হইয়াছিল। একই লোক দুদিকে, একই ভাবে উভয়ের কাৰ্য্য চলিয়াছিল। ভারত-সভা সংক্রান্ত অবশিষ্ট কথাগুলি বলিয়া ফেলি। শিশির বাবু ইণ্ডিয়ান লীগ নামক স্বতন্ত্র রাজदेनडिक नडl:कब्रिएलन बा, किछु डालांब्र कमिटिड बनामांश्न cचाग ७ আনন্দমোহন বসুকেও লাইলেন। অল্পদিনের মধ্যে বুঝিতে পারিলেন ইহঁরা কমিটিতে থাকিলে শিশির বাবুরা তাহদের সভাটিকে তঁাচাদের মনের মত চালাইতে পরিবেন না। তাই ইহাদিগকে তাড়াইবার চেষ্টা হইতে লাগিল। আমি তখন আমার মাতুল মহাশয়ের সোমপ্রকাশ কাগজ ও প্রেস ভবানীপুরে তুলিয়া আনিয়া কাগজ চালাইতেছি। সংস্কৃত কলেজের ছাত্র ও আমার সুপরিচিত এক ব্যক্তিকে তখন আমার সহকারীরূপে গ্ৰহণ করিয়াছিলাম। আমার সহকারী মধ্যে মধ্যে অমৃতবাজার আপিসে যাইতেন। একদিন তিনি আমাকে বলিলেন, “আজি শিশির খোষের অনুরোধে একটা খারাপ কাজ করে এলাম। ইণ্ডিয়ান