পাতা:আত্মচরিত (শিবনাথ শাস্ত্রী).pdf/৫৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

fīš9f ১৮৫৬ সালের আষাঢ় মাসে বাবা আমাকে কলিকাতায় আনিলেন । তাহার ইচ্ছা ছিল যে আমাকে ডেভিড হেয়ারের স্কুলে ভর্ত্তি করিয়া দিয়া ইংরাজী শিখাইবেন ; কারণ তিনি দেখিয়াছিলেন যে তিনি সংস্কৃত শিক্ষাতে এত বৎসর দিয়াও এবং কলেজ হইতে মুখ্যাতির সহিত উত্তীর্ণ হইয়াও ২৫ টাকার অধিক বেতন পাইলেন না। সুতরাং বুঝিয়াছিলেন যে ইংরাজীর গন্ধ না হইলে কাজকর্ম্ম পাইবার সুবিধা নাই । DDDrDBD DBBBDLL TL DBBDL B K S SDD BBB DBBD জেলায় আমদপুরে পণ্ডিতি করিয়া আসিয়া কলিকাতা বাঙ্গলা পাঠশালাতে ২৫ টাকা মাসিক বেতনে কর্ম্ম করিতেন। অতএব পুত্রকে উৎকৃষ্টরূপে ইংরাজী শিখাইবার যে বাসনা ছিল, তাহা তাহাকে পরিত্যাগ করিতে হইল। কেবল তাহাঁই নহে। ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর মহাশয় তখন সংস্কৃত কলেজের অধ্যক্ষ ; তিনি আমার মাতুলের সঙ্গাধ্যায়ী DD BBD SBD BDBD DBLD DDDSDDD DBDBS DBBLDL আসিতেন, এবং আমাকে নিকটে পাইলেই দুইটা আঙ্গুল চিমটার মত করিয়া আমার পেট টিপিতেন ; সুতরাং বিদ্যাসাগর আসিয়াছেন শুনিলেই আমি সেখান হইতে পলাইতাম। যাহা হউক, তখন বিদ্যাসাগর মহাশয় সংস্কৃত কলেজে ইংরাজী শিক্ষা প্রবর্ত্তিত করিয়াছিলেন; তিনি আমার বাবাকে আমাকে হেয়ার স্কুলে না দিয়া সংস্কৃত কলেজেই দিতে বলিলেন ; তদনুসারে আমাকে সংস্কৃত কলেজে ভর্ত্তি করা হইল। ঐ কলেজে। আমার মাতুল দ্বারকানাথ বিদ্যাভূষণ মহাশয় অধ্যাপকতা করিতেন । ,