পাতা:আত্মচরিত (৪র্থ সংস্করণ) - শিবনাথ শাস্ত্রী.pdf/১৩৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১৮৬৮-৬৯ ] হৃদয় পরিবর্তনেব। দ্বিতীয় ফল, আত্মনিগ্ৰহ à Nà?) অগ্ৰেই বলিয়াছি, আমবা দাক্ষিণাত্য বৈদিক কুলজাত কুলীন ব্ৰাহ্মণ । আমাদেব মধ্যে তখন কুলসম্বন্ধেব প্ৰথা ছিল। তদনুসাবে হেমলতার শৈশবেই বিবাহ সম্বন্ধ স্থিব কবিবাব কথা। আমি সে, পথে বিরোধী হইলাম। তাহাব বিবাহ সম্বন্ধ কবিতে নিষেধ কবিয়া পিতাকে পত্ৰ লিখিলাম। তাহাতে বাবা কুপিত হইলেন। আমাব নিষেধ গ্রাহ কবিলেন না । আমাব অজ্ঞাতসাবে গোপনে একটী শিশু বালকেৰ সহিত তাহাব বিবাহসম্বন্ধ স্থাপন কবিলেন। আমি শুনিয়া অতিশয় দুঃখিত হইলাম। হৃদয় পরিবর্তনের দ্বিতীয় ফল, আত্মনিগ্ৰহ ।- ঈশ্ববিচবাণে প্রাগন দ্বাবা আমাব হৃদয-পবিবর্তন ঘটিলে, আমাব প্ৰাণে এক নুতন সংগ্ৰাম জাগিয়াছিল। সকল বিষয়ে আপনাকে ঈশ্ববেচ্ছাব অনুগত কবিবােব জন্য দুবন্ত প্ৰতিজ্ঞা জন্মিবাছিল। ইহাব ফল জীবনেব। সকল দিকেই প্ৰকাশ পাইতে লাগিল। সকল বিষয়ে আপনাকে শাসন কবিতে আবম্ভ কলিলাম। যে যে বিষয়ে আসক্তি ছিল তাহা ত্যাগ কবিতে এবং যে-কিছু অকচিকব তাহা অবলম্বন কবিতে প্ৰবৃত্ত হইলাম। এই সময়ে আমি প্ৰথমে মাংসাহাব পবিত্যাগ করি, প্ৰাণীহত্যা নিবাবণের ইচ্ছায় নয়, কিন্তু মাংসেবা প্ৰতি আসক্তি ছিল বলিয়া। মাংসাহাবে এমনই আসক্তি ছিল যে, ভবানীপুবে চৌধুৰী মহাশয়দিগেব বাড়ীতে বাসকালে প্ৰায় প্ৰতি ব্যবিবােব প্ৰাতে যখন কালীঘাট হইতে জীবন্ত পাঠ আসিত, সে পাঠাব। ডাক শুনিলেই আমাব পড়া-শুনা বন্ধ হইত। তাহাকে কাটিয়া কুটিয়া বাধিয়া পেটে না পুবিতে পাৰিলে আর কিছু করিতে পবিতাম না । কবিতা পড়িতে ও কবিতা লিখিতে অতিরিক্ত ভালবাসিতাম বলিয়া কিছুদিন কবিতা পড়া বন্ধ কবিয়া দিলাম, ফিলজফি ও লজিক পড়িতে আরম্ভ করিলাম। বন্ধুদেৰ সহিত হাসিঠাট্ট ও গল্পগাছা কবিতে ভালবাসিতাম, কিছুদিন মনের কাণ মলিয়া শিক্ষা