পাতা:আত্মচরিত (৪র্থ সংস্করণ) - শিবনাথ শাস্ত্রী.pdf/৫৪২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


SG) o শিবনাথ শান্ত্রিীব আত্মচাবিত [ श्रदि দেখিয়া সকলেই বিস্মিত হইয়াছিলেন। তিনি বিশ্বাস করিতেন, তাহার প্রার্থনা ও আশীর্বাদে আমি সারিয়া উঠিব। sD DBBDDD BBBDD DDB sBBB sBBD BzD DDS SDD গয়া কাশী বৃন্দাবন জগন্নাথক্ষেত্ৰ প্ৰভৃতি সমুদয় প্ৰধান প্ৰধান তীর্থস্থান পরিদর্শন করিয়াছিলেন ; তথাপি পুণ্যস্থান দেখিবার আকাঙ্ক্ষা মিটিত না । তাহার ধৰ্ম্ম কাজক্ষণ যেন অসীম ছিল । আমার শৈশবকাল হইতেই জননী তাঁহার হৃদয়ের সর্বোচ্চ ভাবগুলি আমার হৃদয়ে মুদিত করিবার প্রয়াস পাইয়াছেন। প্রথমতঃ, আমার বর্ণপরিচয় হইলেই এবং পড়িতে শিখিলেই তিনি এই নিয়ম করিয়াছিলেন। যে, যে-দিন আমার পাঠশালা বা স্কুল থাকিত না, সেইদিন দুপুরবেলা তিনি আহবান্তে বিশ্রামার্থ শয়ন করিলে আমাকে কৃত্তিবাসের রামায়ণ পাঠ করিয়া তাঁহাকে শুনাইতে হইত। যে স্থানটী অধিক মিষ্ট লাগিত, দিনের পর দিন বহুবার তাহ পাঠ করাইতেন, এবং মাতা পুত্রে সে স্থানটি মুখস্থ আবৃত্তি করিতাম। তদবধি বহু কাল আমি রামায়ণেব অনেক স্থল মুখস্থ বলিতে পারিতাম। এই দীর্ঘকাল পরেও রামায়ণের কোনও কোনও দৃশ্যের ছবি যেন আমার চক্ষেব সম্মুখে রহিয়াছে। এইরূপে, ব্ৰাহ্মধৰ্ম্মের ভাব পাইবার পূর্বে, রামায়ণের ধৰ্ম্ম আমার ধৰ্ম্ম ও রামায়ণের DDDBD BB DD DDBS BDD DDDBB BDDB BDBSBKBK BuYY আদর্শ আছে, ইহা কেহ বলিলে আমি সহস্থ করিতে পারিতাম না । দ্বিতীয়তঃ, মা যদি কখনও শুনিতে পাইতেন যে, কেহ আমার সহিত এইরূপ তর্ক উপস্থিত করিয়াছে যাহাতে ঈশ্বরে ও পরকালে অবিশ্বাস প্ৰকাশ পায়, তখন তিনি বাঘিনীর ন্যায় তাহার মধ্যে পড়িতেন, অতিশয় অসন্তোষ প্ৰকাশ কবিতেন, ও সে তর্ক থামাইয়া দিবার চেষ্টা করিতেন। এমন কি, আমার পিতাও যদি তর্কস্থলে এমন কিছু বলিতেন, তাহাও মা সহ্য করিতেন না । বলিতেন, “আমার ছেলের মাথা খেয়েt