পাতা:আত্মচরিত (৪র্থ সংস্করণ) - শিবনাথ শাস্ত্রী.pdf/৫৪৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


द भीम {}) ୧୪ "আমার বয়স যখন ১২ কি, ১৩ বৎসর, ও আমার বড় মামীর বয়স ১৭ কি ১৮, (ইনি বড় মামার তৃতীয় পক্ষের স্ত্রী, ) তখন মাসীরা একটা কথা DBBD DDD DDD BBBBSDBB DBB DBBDLSS S B DBDD মামার পড়ার নেশা এমনি প্ৰবল ছিল যে, রাত্ৰি ১১টার সময় বড় মামী যখন গৃহকাৰ্য্য সমাধা করিয়া শয়ন করিতে গেলেন, তখন দেখিলেন যে বড় মামা এমন পাঠে নিমগ্ন যে একবার মামীর দিকে চাহিয়াও দেখিলেন না । মামী গায়ে পড়িয়া কথা কহিতে গেলেন, বড় মামা বাম হন্তেয় ইসারা করিয়া তাহাকে থামিতে আদেশ করিলেন। মামী মানিনী হইয়া দাম করিয়া আছাড়িয়া বিছানাতে পড়িলেন, সে রাত্রে আর মামার সহিত কথা কহিলেন না। বাস্তবিক, আমি অনেক দিন রাত্ৰ ১১টার সময় শয়ন করিতে যাইবার সময় দেখিয়াছি, বড় মামা পাঠে নিমগ্ন ; আবার রাত্রশেষে ৪টার সময় উঠিয়া দেখিয়াছি, বড় মামা পাঠে নিমগ্ন। বিস্মিত হইয়া ভাবিয়াছি, তবে তিনি ঘুমান কখন ! ১৮৫৮ সাল হইতে সোমপ্ৰকাশ কাগজ বাহির হইলে এই নির্জনবাস ও পাঠাভ্যাস অতিরিক্ত মাত্রায় বাড়িয়া গিয়াছিল। যখন তিনি তাহার ছাপাখানা ও সোমপ্ৰকাশ কাগজ তাহার বাসগ্রাম চাঙ্গতৃিপোতাতে তুলিয়া লইয়া মাত্ল বেলওয়ের ডেলি প্যাসেঞ্জার হইলেন, তখনও দেখিতাম, গাড়ী আসিতে বিলম্ব আছে, নানা জনে নানা কথা কহিতেছে, তিনি একপাশে তন্মনস্ক হইয়া কলেজে যাহা পড়াইবেন, সেই পুস্তক পড়িতেছেন। গাড়ীর মধ্যে তাহার সঙ্গে উঠিয়া অনেকবার দেখিয়াছি, নানা জনে নানা প্ৰসঙ্গ করিতেছেন, তিনি কিছুতেই বড় একটা যোগ দিতেছেন না, হুই করিতেছেন মাত্র ; অধিকাংশ সময় হয় মন্থন মুদ্রিত করিয়া দুলিতেছেন, না-হয় কলেজের পুস্তক দেখিতেছেন। কোিকল, যাহাতে কোনও অন্যায় ৰ অধৰ্ম্মের প্রতিবাদ আছে। এরূপ কোনও আলোচনা উঠিল, ও তাঁহার মত জিজ্ঞাসা কুরিলে, তাহার মুখশ্ৰী বদলিয়া