পাতা:আত্মবোধ.djvu/১৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


:8 श्रांङ्कटब|५ ॥ ফলতঃ অবিদ্যার বৃত্তিৰূপ অন্তঃকরণ যে প্রকার অন্মদাদির অন্তঃরঙ্গোপাধি ও দেহেন্দ্রিয়াদি বহিরঙ্গেীপাধি সেইৰূপ বিদ্যা ও অবিদ্যা এতদুভয়ই র্তাহার উভয় উপাধি হইয়াছে। অতএব ঐভাগবতে উক্ত উভয়কে পরমেশ্বরের অবয়ব বলিয়া অবধারিত করিয়াছেন । তথাচ একাদশস্কন্ধে “বিদ্য। ছবিদ্যে মম তনু বিদ্ধ ন্ধব শরীরিণাং । বন্ধমোক্ষকরী আদ্যে মায়য়া মে বিনিশ্মিতে” । অর্থাৎ হে উদ্ধব আমার মায়াদ্বারা বিনিৰ্ম্মিত বিদ্যা ও অবিদ্যা এ উভয়ই আমার অবয়ব, তদুভয়দ্বারা শরীরিসমুহের ব্যতিক্রমে বন্ধ মোক্ষ ব্যবস্থিত হইয়৷ থাকে। আমরা যে প্রকার স্বীয় অন্তরঙ্গোপাধিৰূপ অন্তঃকরণদ্বারা বহিরঙ্গোপাধিৰূপ দেহেন্দ্রিয়াদির সঙ্কোচন প্রসারণাদি করত নানাবিধ কৰ্ম্ম নিৰ্ব্বাহ করি সেই প্রকার বিশ্বস্রষ্টাও বিদ্যাদ্ধার অবিদ্যার সঙ্কোচন প্রসার৭াদি করত বিশ্বকার্য্য সম্পন্ন করেন, ইহাই ঈশ্বরত্ব ও জীবত্ব কল্পনার নিদান হইয়াছে। জীবসমুহের যেঞ্জকার স্ব২ দেহে অভিমান আছে, জগন্নিৰ্ম্মাতা পরমেশ্বরেরও সেই প্রকার সমস্ত দেহ ও ভূত ভৌতিক কার্য্যে অভিমান রহিয়াছে। এই নিমিত্তই ঈশ্বর ও জীব সমষ্টি ও ব্যষ্টি শব্দে উক্ত হয় । সমষ্টি, যেগ্রকার নানা তরঙ্গায়িত জলসমূহের প্রত্যেকই তরঙ্গ পৃথক২ৰূপে কথিত না হইলে মহাসমুদ্র নামে উক্ত হয়, সেই প্রকার নানাজীবাকর বিশ্বনিৰ্ম্মাতা সামস্ত্যৰূপে অভিহিত হইলে পরমেশ্বর বলিয়া খ্যাত হয়েন । এবং ব্যষ্টি যেৰূপ উক্ত সামুদ্রিক তরঙ্গসমূহ প্রত্যেকে স্থূলতুরঙ্গ ও স্বক্ষতরঙ্গ ইত্যাদিক্ৰমে ব্যপদিষ্ট হয়, সেইৰূপ , সমস্ত জীবাদির পৃথক২ কখনেচ্ছায় মনুষ্য জীব এবং পশু জীব ইত্যাদি প্রকারে উল্লেখিত হয়। এইৰূপ সমস্ত বৃক্ষের একত্র