পাতা:আদরিণী - প্রিয়নাথ মুখোপাধ্যায়.pdf/২৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

তৃতীয় পরিচ্ছেদ।

১৫

সামান্য পুস্তকের কলেবর বৃদ্ধি ও পাঠক বর্গের ধৈর্য্যচ্যুতি হইবে; এই আশঙ্কায় সে সকল অংশ পরিত্যাগ পূর্ব্বক কেবল তাহার কয়েকটি সার কথাই বিবৃত করা হইল।

চতুর্থ পরিচ্ছেদ।

 মরুচর বঙ্গদেশের একটা প্রসিদ্ধ জনপদ, জাহ্নবী তীরে বিরাজিত, প্রশস্ত প্রশস্ত রাজবর্ত্মে বিভক্ত ও সুরম্য সৌধাবলীতে শোভিত। এখানে পশ্চিম দেশীয় বণিকসম্প্রদায় ধনলোভে বাণিজ্য করিতে আসিয়া অতুল ঐশ্বর্য্যশালী হইয়াছেন; তাঁহাদের মধ্যে, অনেকে স্বভাবসিদ্ধ ধনলিপ‍্সা নিবৃত্তি করিতে না পারিয়া অদ্যাপিও বাণিজ্য কার্য্যে রত আছেন, কেহ বা অতুল ঐশ্বর্যের অধিকারী হইয়া আপন আপন ধনমদে প্রজাবর্গকে নিপীড়িত করিতেছেন। এই জমীদার সম্প্রদায়ের মধ্যে সত্যবাদী, জিতেন্দ্রিয়, পরদুঃখ কাতর, প্রজাহিতেরত একজন অতুল ঐশ্বর্য্যশালী জমীদার ছিলেন; নিজ মরুচর তাঁহারই জমীদারী ছিল তিনি যখন ইহলোক পরিত্যাগ করেন, সেই সময় তাঁহার জগৎ সিংহ নামক এক মাত্র পুত্রকে ঐ অতুল ঐশ্বর্য্যে অধিপতি রাখিয়া যান; কিন্তু জগৎসিংহ অল্প বয়সে