পাতা:আমার বাল্যকথা ও আমার বোম্বাই প্রবাস.pdf/১৭৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


నిg অামার বোম্বাই প্রবাস করছে ও অগাধ ভূমিসম্পত্তির অধিকাৰী। দেখতে হারা বলিষ্ঠ, মৃগঠন ও স্ব শ্ৰী, আসল সিন্ধী হতে ইহাদের পার্থক্য সহজে ধরা পড়ে । হিন্দুরা সামান্তত ব্রাহ্মণ, বণিক ও শূদ্র এই তিন বর্ণে বিভক্ত। ব্রাহ্মণদের পোকর্ণ ও সারস্বত দুই শ্রেণী । পোকর্ণ ব্রাহ্মণের মহারাজ-ভক্ত বৈষ্ণবপন্থী । ইহারা ভাটিয়া বণিকদের পুরোহিত। সারস্বত পঞ্চগৌড় ব্রাহ্মণ প্রায় দুই শত বৎসব হতে সিন্ধু দেশে এসে বাস করছে। আচার ব্যবহার কুলশীলে ইঙ্গার বোম্বায়ের সেনই ব্রাহ্মণদের সমতুল্য। মৎস্ত মাংস ভক্ষণ ইহাদের নিষিদ্ধ নহে । বণিক জাতির মধ্যে লোহান ও ভাটিয়া, এই দুই শাখা অগ্রগণ্য। মূলতানের লোহানপুর ও লোহান বণিকদের মূলনিবাস । ঐ স্থান হষ্টতেই তার জাতীয় নাম গ্রহণ করেছে। তারা বলোচিস্থান আফগানিস্থান প্রভৃতি দূব দেশে ব্যবসা-স্থত্রে ছড়িয়ে পড়েছে। ম্লেচ্ছদেশে গমন কবলে লোহান হিন্দুরা জাতিভ্ৰষ্ট হয় না । এই সকল বিষয়ে অস্তান্ত হিন্দুদেব তুলনায় লোহান বণিয়াদেব উদাব বুদ্ধি প্রশংসনীয়। লোহানাগণ ব্যবসা অনুসাবে অমিল ও বণিক ( বনিয়া ) এই দুই শ্রেণীতে বিভক্ত । বণিকের শ্মশ্রমুণ্ডন, শিখারক্ষণ ও হিন্দুদের মত পাগড়া পরিচ্ছদ পরিধান করে। আমিলদের চালচলন কতকটা ভিন্ন । আমিল অামিলের সিন্ধী হিন্দুদের অগ্রণী । মুসলমান রাজত্বকালে এই শ্রেণীর স্বষ্টি হয়। রাজকাৰ্য্যে, বিশেষতঃ হিসাবপত্রের কাজে মুসলমান রাজাদের হিন্দুর সাহায্য ব্যতীত চলিত না। আমিলের আমীরদের মন যুগিয়ে চাকরি আরম্ভ করে ও ক্রমে নিজ নিজ বিদ্যাবুদ্ধির চতুর্য্য প্রভাবে জনসমাজে থ্যাতি প্রতিপত্তি স্থাপন করিয়া লয়। অন্তান্ত হিন্দুদের তুলনায় আমিলেরা দেখিতে হৃষ্টপুষ্ট ও সুশ্ৰী। মুসলমানদের সংসর্গে ও মুসলমান প্রভুদের অনুরোধে তাছারা মুসলমানদের মত বেশভূষা, পাগড়ী ও শ্মশ্রধারণ কৰে-কপালে তিলক এইমাত্র প্রভেদ। পান আস্থারে তাহারা অনেকটা শাক্ত ধরণের লোক, মদ্য মাংসে অরুচি নাই। আমি যখন সিন্ধু দেশে কৰ্ম্ম করতেম, তখন KBBGtD BBB BBBB BSBB BDD BBB BBS BBS BBBBBB BB উপায়ে উন্নতি-সাধন করতে হয় তাহার। যেমন ভাল বোঝে অন্ত জাতির তেমন বুঝে না, সুতরাং তাহারা আর সকলকে ছাড়িয়া উঠেছে, অন্তেবা পিছিয়ে পড়ে আছে। এই সকল হিন্দু ভিন্ন হাইদ্রাবাদ দেওয়ান ও অন্যান্ত স্থানে অনেক শিখের বসত্বি