পাতা:আমার বাল্যকথা ও আমার বোম্বাই প্রবাস.pdf/২১৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আমার বোম্বাই প্রবাস ১৬৩ জন্ত বিজাপুর তাহাকে বার্ষিক তিন লক্ষ টাকা ঘুম দিতে প্রতিশ্রত হইল। মারাঠীগণের অত্যাচার হইতে নিস্কৃতি পাইয়াও বিজাপুরের শাস্তি নাই । ১৬৬৫ খৃষ্টাব্দে , সম্রাট ঔরঙ্গজেব বিজাপুর বিজয় মানসে রাজা জয়সিংহকে দক্ষিণে প্রেরণ করেন। মালি যদিও এই মোগল আক্রমণ অনেক কষ্টে প্রতিরোধ করিলেন কিন্তু দেখিলেন যে দুৰ্দ্দাস্ত দুৰ্দ্ধৰ্ষ মোগলদের হস্ত হইতে র্তার রাজ্যরক্ষা করা সুকঠিন। ছুই বৎসর পরে মোগল সম্রাটের সহিত র্তাঙ্গর এক সন্ধি হয়, তাহাতে তিনি বিজাপুর রাজ্যের অনেক ভাগ ছাড়িয়া দিতে বাধ্য হইলেন । ছাটিয়া ছুটিয়া ভীম নদী রাজ্যের উত্তর সীমা নিরূপিত হইল। ১৬৭২ অব্দে ১৬ বৎসর বিচিত্র ঘটনাপূর্ণ রাজত্বের পর দ্বিতীয় আলি আদিল সা ইহলোক হইতে অপস্থত হইলেন । আলির মৃত্যুকালে তাহার পুত্র সেকন্দরের বয়ঃক্রম পাচ বৎসর। সেকন্দর আদিল স৷ বিজাপুরের শেষ সুলতান, ইহার রাজত্বকালে মোগল সম্রাট ঔরঙ্গজেব বিজাপুর আক্রমণ করেন । - অনেক দিন হইতে বিজাপুর বিজয়ে তাহার সাধ । যদিও এ পর্য্যন্ত আশামুরূপ ফললাভ হয় নাই, তাহার সেনাপতিগণ বারম্বার বিফল-প্রযত্বে বিজাপুরের দ্বার হইতে শূন্ত হস্তে ফিরিয়া যাইতে বাধ্য হইয়াছেন, তথাপি সে চিরপোষিত রাজ্যলোভ নিরস্ত হইবার নহে। ১৬৮৩ খৃষ্টাব্দে তিনি দক্ষিণ বিজয় উদ্দেশে অসীম সৈন্তসামন্ত সমভিব্যাহারে দিল্লী হইতে নিষ্ক্রাস্ত হইলেন-সেই ষে দিল্লী ছাড়িলেন আর ফিরিবার অবকাশ পাইলেন না । তখন র্তাহার বয়ঃক্রম প্রায় ৬৩ বৎসর—তাহীর জীবনের অবশিষ্ট ভাগ পথে পথে তাম্বুতে তাম্বুতে অতিবাহিত হইল। অনেক যুদ্ধে তিনি দক্ষিণের মুসলমান রাজ্য সকল জয় করিলেন বটে কিন্তু মারাঠীদের দমন চেষ্টায় তাহার সমস্ত বলহানি, সমস্ত আয়ুক্ষয় হইল। পরিশেষে প্রায় ৯০ বৎসর বয়সে ৬৯ বৎসর রাজত্বের পর অশেষ বিঘ্ন বিপত্তির মধ্যে তিনি দেহত্যাগ করিলেন । তখন র্তাহার কি শোচনীয় অবস্থা ! অতীতের দৃশু কি ভয়ঙ্কর, ভবিষ্যৎও অন্ধকারময়। পুত্রের বিদ্রোহী, উৎপীড়িত হিন্দুরাজগণ প্রতিপীড়নে সমুদ্যত। তিনি যদি দক্ষিণ মুলতানদের সহিত মিলিয়া মহারাষ্ট্রীদের দমনে সচেষ্ট হইতেন তাহ হইলে হয়ত কৃতকাৰ্য্য হইতে পারিতেন কিন্তু দক্ষিণের মুসলমান রাজ্য সকল গ্রাস করিয়া সে পথ বন্ধ করিয়াছিলেন। তিনি স্বহস্তে প্রলয়ের বীজ বপন করিয়া গেলেন—অল্পকাল মধ্যেই তাহার রচিত প্রকাও রাজ্য ভগ্নচুৰ্ণ হইয়া ধূলিসাৎ হইল । * ১৭৯৫ খৃষ্টাব্দে করেরি নামক ইতালিয়ন পরিব্রাজক ঔবঙ্গজেবের ক্যাম্প দেখিতে যান, তাহার ভ্রমণবৃত্তান্ত হইতে মোগল সম্রাটের চালচলন ও যুদ্ধপ্রবাসের কতক আভাস