পাতা:আমার বাল্যকথা ও আমার বোম্বাই প্রবাস.pdf/৭৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আমার বাল্যকথা ¢ ግ বিলাত যাত্রা প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে আমার বিলাত যাত্রা । আমি কখনও স্বপ্নেও যা ভাবি নাই আমার ভাগ্যে তাই ঘটল । আমাদের জীবনে পদে পদে দেখা যায়–দৈবের কি বিচিত্র গতি! এক একটা অদৃষ্টপূৰ্ব্ব আকস্মিক ঘটনা এসে কত সময় আমাদের জীবনস্রোতকে কোন এক অজ্ঞাত নূতন পথে যেন বলপূৰ্ব্বক টেনে নিয়ে যায়—যার পূৰ্ব্বাভাস কিছুষ্ট পাওয়া যায় নাই। অামাব জীবনে এ কথা সপ্রমাণ দেখতে পাই । আমি বাল্যকালে একভাবে শিক্ষিত হচ্ছিলুম, আমার জীবন একভাবে গঠিত ও নিয়মিত হচ্ছিল, দৈবঘটনায় কোন এক বন্ধু-মিলনে সে সমস্তই উণ্টে গেল, আমার জীবন-প্রবাহ অন্ত দিকে বিবৰ্ত্তিত হ’ল । সেই বন্ধুর মন্ত্রণায় আমার বিদেশমাত্রা, ইংলণ্ডে গিয়ে সিবিল সৰ্ব্বিসের পরীক্ষা দেওয়া ইত্যাদি কাৰণে আমার পূর্ব-নির্দিষ্ট জীবনের সম্পূর্ণ পরিবর্তন ঘটল । বাল্যকাল হ’তে ব্রাহ্মসমাজের সঙ্গে আমার জীবন-স্বত্র গ্রথিত ছিল। কিন্তু অনেকদিন পৰ্য্যন্ত আমাদের এই সমাজ এমন মৃদু মন্দ গতিতে চলছিল যে, তাব প্রভাব বিশেষ অনুভব করতে পারিনি। আমার পিতা সিমলা পাহাড় থেকে ফিরে আসবার পর এমন এক ঘটনা উপস্থিত হ’ল যাতে সেই সমাজের ইতিহাসে এক নূতন পৃষ্ঠ উদঘাটিত হ’ল । সেই ঘটনা হচ্ছে কেশবচন্দ্রের সঙ্গে মিলন । কেশবের আগমনে তামাদের সমাজে নবজীবনের সঞ্চাব হ’ল । তিনি কোন স্থত্রে প্রথমে আমাদের এই দলে প্রবেশ করলেন তা আমার বেশ মনে পড়ে । তিনি প্রথমে আমার সঙ্গে এসে সাক্ষাৎ করেন—আমি তাকে আমার পিতার নিকট নিয়ে যাই । তিনি আপনাদের কুলাচার অনুসারে গুরুমন্ত্র গ্রহণ করবেন কিনা এই বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে মহা আন্দোলন উপস্থিত হয়েছিল । পিতাব সহিত তিনি এই বিষয় পরামর্শ কবতে আসেন। পরামর্শে স্থির হ’ল যে, এই মন্ত্রে যখন তার বিশ্বাস নাই তখন তাহা গ্রহণ করা যুক্তিসিদ্ধ নয়। মন্ত্র গ্ৰহণ না করাই তিনি স্থিব করলেন । সেই অবধি তার উপব তার বাড়ীর লোকদের অত্যাচার আরম্ভ হ’ল এবং পরিশেষে তিনি সব ছেড়েছুড়ে সঙ্গীক আমাদের বাড়ীতে আশ্রয় গ্রহণ কবলেন–পিতাও তাকে স্নেহপূর্বক আপনার পুত্ররূপে বরণ করে নিলেন। সেই সময় থেকে কেশবচন্দ্র ও তার পত্নী ‘ আমাদের পরিবারভুক্ত হয়ে আমাদের বাড়ীতে কিছুকাল বাস কবেন। ব্রাহ্মসমাজের সেই মধ্যাহ্নকাল ;–কেশবের প্রভাবে সমাজ এক নূতন মুৰ্বি ধারণ করলে। আমিও সেই উৎসাহ-তরঙ্গে গা ঢেলে দিলুম। ব্রাহ্মসমাজের বেদী হ’তে পিতার হৃদয়ভেদী প্রার্থনা ও উপদেশ, আর আমাদের রচিত 切ア