পাতা:আমার বাল্যকথা ও আমার বোম্বাই প্রবাস.pdf/৯৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ዓby অামাব বোম্বাই প্রবাস বৎসর পূৰ্ব্বে নির্দিষ্ট করা অসঙ্গত নহে। যতদূর জানা গিয়াছে তাহাতে বলা যাইতে পারে যে, এই জরতোস্ত খৃষ্টাব্দের সহস্রবর্ষ পূৰ্ব্বে পারস্ত রাজা গুষ্টম্পের রাজত্বকালে প্রাচুভূত হন। র্তাহার সময়ে পারসী ধৰ্ম্ম ঘোবতব পৌত্তলিকতা ও কুসংস্কারে আচ্ছন্ন ছিল । তিনি তাহ সংশোধনে ব্ৰতী হইয়া একেশ্বরবাদ প্রচার কবেন । তিনি যে সকল ধৰ্ম্মগ্রন্থ প্রণয়ন করিয়াছেন, তাহ প্রাচীন ইবাণী ভাষায় লিখিত ও তাহার নাম অবস্ত । এই সকল গ্রন্থের অধিকাংশ নষ্ট হইয়া গিয়ছে--অবশিষ্ট অল্প ভাগ পারসীদের নিকট পাওয়া যায় এবং তদন্তৰ্গত মন্ত্রাবলী তাহদের মুখে শ্রবণ করা যায়। জরতেীস্তের উপদেশ এই যে, ঈশ্বর একমাত্র সব্বশক্তিমান—জগতের স্রষ্ট, পাতা ও সৰ্ব্বসুখদাত । তিনি জ্ঞানস্বরূপ জ্যোতির জ্যোতি। তিনি পুণ্যেৰ পুরস্কৰ্ত্তা,– পাপের শাস্ত । তাহার নাম অহুরমজদ ( অপভ্রংশ, হোম জদ ) । আশ্চৰ্য্য এই যে, সংস্কৃত ও সংস্কৃতমূলক সমস্ত ভাষায় ঈশ্বরের নাম দিব ধাতু অর্থাৎ প্রকাশ হইতে উৎপন্ন— জেন্দ ভাষায় উণ্টী, দেব শব্দে অম্বর বুঝায়। ঈশ্বর অর্থে অস্থর শব্দের প্রয়োগ । বেদ ও অবস্তার মধ্যে ইন্দ্র মিত্র বৃত্রহী প্রভৃতি কতকগুলি নামের ঐক্য দেখা যায়—সে সকল নাম মে সমান অর্থে ব্যবহৃত তা নয় । বেদের দেবত হয় ত অবস্তার দানব হইয়া দাড়াইয়াছে। ইন্দ্র যিনি দেবাদিদেব অবস্তায় তিনি দানবেশ্বব, সয়তন অহিমানের নীচেই গণনীয়। আবার আশ্চৰ্য্য এই যে, ইন্দ্রের অপর মূৰ্ত্তি বৃত্ৰয় অবস্তায় দেবতার মধ্যে গণ্য। দেবসংখ্যা দুয়েতেই সমান। বেদের ত্রয়ন্ত্রিংশং দেবের অনুরূপ অবস্তার ৩৩ জন “রতু" প্রধান, তাহারা জরতোস্ত প্রচারিত অহুরমজ দের সত্যধৰ্ম্ম সংরক্ষণে নিযুক্ত । পারসীদের যমসেদ ( যমক্ষেত ) বেদেব যমরাজা—উভয়েরই পিতৃনাম বিবস্বৎ। বেদে যমরাজার ঘেরূপ বর্ণনা আছে তাহা পৌরাণিক দানবরূপী যমের সঙ্গে কিছুই মেলে না। বেদের যম মানবকুলের আদিপুরুষ, যিনি মর্ত্য হইতে স্বর্গের পথ আবিষ্কার করিয়াছেন, সে পথ দিয়া তাহার বংশজের সকলেই গমন করে ও গিয়া তার সেই সুখরাজ্যে বাস করে। ইরাণী গ্রন্থে আছে যমসেদ সত্যযুগের রাজা ছিলেন, প্রজারা তাহার রাজ্যে রোগ শোক হইতে মুক্ত হইয়। পরম সুখে বাস করিত। জগতে মঙ্গল অমঙ্গল দুষ্ট আছাশক্তি অহুরমজ দের অধীনে কাৰ্য্য করিতেছে। মঙ্গল শক্তি স্পেণ্টে মৈনুষ জ্যোতি ও সৌন্দর্য্যের আকর, সমুদায় সুখকারী ও হিতকারী বস্তুর জনয়িতা। অমঙ্গল শক্তি আঙ্গে মৈনুষ যত অমঙ্গলের আকর, দুঃখ BBB BBBBS BB BBBB BBBB BBBS BBBBBS BB BBBBSBBB একের, অন্ধকার অন্তের প্রতিকৃতি । এ উভয় শক্তি যদিও পরম্পর বিরোধী—তথাপি দিবারাত্রের স্তায় অবিচ্ছিন্ন ও স্বষ্টিরক্ষণে উভয়েই নিযুক্ত।