পাতা:আমিষ ও নিরামিষ আহার প্রথম খণ্ড.djvu/১২৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


& ο আমিষ ও নিরামিষ আহার । হয় না। বর্ষাকালে উত্তরোত্তর সকল তরকারীই প্রায় দুর্লভ এবং মহীর্ঘ হয় ; সেইজন্য বর্ষাকালের পুৰ্ব্বে এ সকল যতটা পারা যায় সংগ্ৰহ করিয়া রাখিলে ভাল। কুমড়াও বর্ষাকালের পূর্বে শিকায় টাঙ্গাইয়া রাখিলে ভাল থাকিবে । যে বা ভাড়ারের জন্ত একটি স্বতন্ত্র ঘর ছাড়িয়া দিতে পারিল না, তাহাকে একটি আম কাঠের সিন্দুকের ভিতরে দস্ত কি টিন মুড়িয়া লইয়া ভিন্ন ভিন্ন জিনিষ রাশিবার জন্য তাহার ভিতরে আবার খোপ খোপ করিয়া লইতে হইবে, তাহা হইলে ভিন্ন ভিন্ন স্থানে হাতের কাছেই সব জিনিষ পাওয়া যাইবে । জলের আলমারীতেও ভাড়ারের জিনিষ-পত্র রাখিলে বেশ হয়, ভিতরে হাওয়া প্রবেশ করিতে পায় ; তfহাতে সামগ্ৰী সকল ভাল থাকে । ভূত্যেরা দোকান হইতে দ্রব্যাদি কিনিয়া আনিলে তারপরে তাহীদের নিকট হইতে সেই গুলি ওজন করিয়া লওয়া ভাল । অনেকে বড় মানুষী দেখাইতে গিয়া ঐ বিষয়ে অবহেলা করেন, কিন্তু গৃহস্বামীর অবহেলা ভাব দেখিয়ী ভূত্যের প্রশ্রর পায় ; গৃহস্বামীরই নিকট হইতে তাহার ক্রমশঃ অসংযত ভাব শিক্ষা করে । অসংযম হইতে লোভের স্বত্রপাত হয় ; সামান্ত হইতে ক্রমে মূল্যৰf. দ্রব্যের উপর লোভ পড়ে ; শেষকালে আমরা যদি ও ভূস্থ র দোষ দিব বটে, কিন্তু অনুসন্ধান করিয়া দেখিতে গেলে গোড়ায় ষে গৃহস্বামীরই দোষ তাহ স্পষ্ট। ভূতাদের দিতে ইচ্ছা হয় তুমি স্বতন্ত্র পুরস্কার দাও ; ভূত্যেরাও সেটা পাইয়াছে বলিয়া মনে ক্ষরিবে । বাজারের পয়সা হইতে ঘতই কেন লউক না কখনো বলিবে না যে মনিবের কাছে পাইয়াছি । সে বলিবে ইহাতে তাছায় স্বোপার্ভুিত । এ বিষয়ে ভূ ত্যদের প্রশ্রয় দিয়া বড়মাম্বষী